Date : 2023-02-02

যাদবপুরের উপাচর্যকে দেখতে হাসপাতালে রাজ্যপাল, কিছুক্ষণ পরেই গেলেন শিক্ষামন্ত্রী….

কলকাতা: কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়াকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কাণ্ড হয় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে। পরিস্থিতি সমলাতে আসরে নামেন উপাচার্য ও সহ-উপাচার্য। বাম সমর্থিত ছাত্র সংগঠনের একদল ছাত্র কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে লক্ষ্য করে প্রথমে স্লোগান দিতে শুরু করে, এরপর হঠাৎ-ই একদল ছাত্র ঝাঁপিয়ে পড়ে মন্ত্রীর উপর। ব্যাপক হেনস্থা করা হয় বাবুল সুপ্রিয়কে। ঘটনাস্থলে মন্ত্রীকে উদ্ধার করতে নামেন উপাচার্য সুরঞ্জন দাশ।

পড়ুয়াদের সঙ্গে ধস্তাধস্তির জেরে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। সেই মুহুর্তে তাঁকে ঢাকুরীয়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। একই সঙ্গে সহ-উপাচার্য প্রদীপ মিত্রকেও অসুস্থ অবস্থায় নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। শনিবার সকালে তাঁদের দেখতে হাসপাতালে উপস্থিত হন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। এদিন প্রায় ১৫ মিনিট হাসপাতালে ছিলেন রাজ্যপাল।

প্রথমে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাশের কেবিনে যান তিনি পরে সহ-উপাচার্যের স্বাস্থ্যের খবর নেন। আপাতত স্থিতিশীল অবস্থায় আছেন উপাচার্য। রক্তচাপ ও সুগার দুই নিয়ন্ত্রণে। আগামী ২৪ ঘন্টা তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে সোমবার হাসপাতাল থেকে ছুটি দেওয়া হতে পারে উপাচার্য ও সহ-উপাচার্যকে। রাজ্যপাল বেরিয়ে যাওয়ার বেশ কিছুক্ষণ পরে হাসপাতালে উপাচার্যকে দেখতে আসেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এদিন হাসপাতালে পুষ্পস্তবক দিয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। উপাচার্যের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।