Date : 2021-10-26

বকেয়ার DA গায়েব, বেতন বেড়েছে ২৫০০টাকা, ক্ষুব্ধ রাজ্য সরকারি কর্মীরা ফের যাচ্ছেন ট্রাইব্যুনালে…

কলকাতা: ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশ গ্রহণ করার পরেই এক ধাক্কায় রাজ্য সরকারি কর্মীদের বেতন ৩৫ শতাংশ বেড়ে গেছে। নবান্নে এই কথা ঘোষণা করার পরেই খুশির হাওয়া বয়ে যায় রাজ্য সরকারি কর্মীদের মধ্যে যদিও বা একাংশের মধ্যে এখনও রয়েছে অসন্তেষ। তারা রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনালে যাওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। সরকারী কর্মীদের ক্ষোভের কারণ, রাজ্য সরকারি কর্মীদের ক্ষোভের কারণ, ৬,৬০০ টাকা এতদিন রাজ্য সরকারি কর্মীদের ন্যূনতম বেসিক ছিল। এর সঙ্গে ১২৫ শতাংশ ডিএ এবং ১৫ শতাংশ HRA যোগ করে বেতন ছিল ১৫,৮৪০ টাকা।

সোমবার অমিত মিত্র যে বেতনবৃদ্ধির ঘোষণা করেছেন, বেসিক, গ্রেড-পের সঙ্গে বেতন একত্রিত করে দেওয়া হল এবং বর্তমান বেসিকের ২.৮ গুণ হবে বর্ধিত বেতন। অর্থাৎ ৬,৬০০ টাকা বেসিক পান এমন কর্মচারীর বেতন হবে ১৯,৬০০ টাকা। অর্থাৎ বেতন বাড়ল মাত্র ২,৪৮০ টাকা। বকেয়া টাকা ও গ্র্যাচুরিটির টাকা পাওয়ার জন্য রাজ্য সরকারি কর্মীরা দ্বারস্থ হতে চলেছে স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনালের। এদিন সরকারি কর্মচারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মলয় মুখোপাধ্যায় বলেন, ২০১৬ থেকে ২০২০ পর্যন্ত বকেয়া বেতনের কথা বলেননি অর্থমন্ত্রী।

এমনকি ডি-এ-র বিষয় নিয়েও তিনি স্পষ্ট কোন কথা বলেননি। HRA ১৫ থেকে কমিয়ে ১২ শতাংশ করা হয়েছে। তিন বছরের বকেয়া বেতন অন্তত ১ লক্ষ টাকা মতো। সেই টাকার বিষয়ে অর্থ দফতর কেন কথাই বলেননি। কমিটির বক্তব্য, ডিএ নিয়ে কোন সুস্পষ্ট ঘোষণা না করায় ট্রাইব্যুনালের সিদ্ধান্তের অমান্য করেছে রাজ্য সরকার। এই অভিযোগে ফের স্যাটের দ্বারস্ত হতে চলেছে সরকারি কর্মচারীদের ইউনিয়ন।