Date : 2019-11-19

চরম আর্থিক ক্ষতির মুখে ব্যবসা গুটিয়ে দেশ ছাড়তে পারে ভোডাফোন…

ওয়েব ডেস্ক: রিলায়েন্স জিও আসার পর কমেছে গ্রাহক সংখ্যা। দিন দিন শুধুই ক্ষতির মুখ দেখছে সংস্থা। তাই এবার রাতারাতি ব্যাবসা গুটিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে ভোডাফোন? হ্যাঁ, জল্পনা উঠেছিল বেশ কিছুদিন ধরেই। জল্পনা সত্যি করে এবার ব্যবসা গুটিয়ে নেওয়ার কথা জানিয়েছে ভেডাফোন। একই ভাবে ভোডাফোনের পার্টনার সংস্থা গ্রাহক হারিয়ে চূড়ান্ত ক্ষতির মুখে আইডিয়া। একটি সূত্রের খবর, বাজারে লাভের মুখই দেখছে না এই সংস্থা। ভোডাফোন তার ঋণদাতাদের কাছে ঋণের বোঝা কমানোর জন্যও আবেদন করেছে বলে টেলিকম সেক্টরের অন্দরে শোনা যাচ্ছে।

তবে ভোডাফোন একটি বিবৃতি জারি করে বুধবার জানিয়েছে, তারা সাময়িক ভাবে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন ঠিকই, তবে সে জন্য ঋণ কমানোর কোনও আবেদন কারও কাছে তারা করেনি। এই বিষয়টি পুরোপুরি মিথ্যে বলে দাবি করেছে ভোডাফোন। বরং ঋণদাতাদের বকেয়া অর্থ ফেরত দিয়ে হিসেব মিটিয়ে নেওয়া হবে বলে দাবি করেছে তারা।২৫শে অক্টোবর সুপ্রিম কোর্ট এক রায়ে লাইসেন্স ফি ও স্পেকট্রাম ব্যবহারের চার্জ বাবদ ভোডাফোন-আইডিয়াকে ‘অ্যাডজাস্টেড গ্রস রেভেনিউ’-এর (এজিআর) জন্য ২৮,৩০৯ কোটি বকেয়া টাকা দ্রুত মেটানোর কথা বলে। মনে করা হচ্ছে, এই রায়েই বিপাকে পড়েছে ভোডাফোন। কারণ এই রায় মানতে হলে তিন মাসের মধ্যে তাদের মেটাতে হবে প্রায় ৩৯,০০০ কোটি টাকা। ফলে, চলতি বছরে নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ ও আধুনিকীকরণের জন্য রাইটস্ ইস্যুর মাধ্যমে ভোডাফোন আইডিয়া যে ২৫,০০০ কোটি টাকা তুলেছিল, তার সবটাই চলে যাবে সরকারের দেনা মেটাতে। তাই এবার ব্যবসা ধরে রাখাই কঠিন হয়ে গেছে তাদের কাছে, এমনটাই মনে করছে টেলিকম সংস্থা বিশেষজ্ঞরা।