Date : 2019-11-18

সূর্যের আলোয় গরুর কুঁজে সোনা ফলে! ব্যাখা দিলেন দিলীপ ঘোষ….

বর্ধমান:- গরু নিয়ে বিজেপির ব্যাখ্যার শেষ। কখনও রাজ্য নেতৃত্ব আবার কখনও কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব, তর্ক-বিতর্ক সবকিছুর উপেক্ষা করেই গরু নিয়ে একের পর একের বিভ্রান্তিকর মন্তব্য করে গেছেন। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। গরুর দেশি, বিদেশি ভাগ করে তিনি বললেন, দেশি গরুদের কুঁজে সোনা তৈরি হয়। রাজ্য বিজেপির সভাপতির এই মন্তব্যের জেরে বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন উঠতে করেছে, NRC-তে কবে বিদেশি গরুকেও চিহ্নিত করা হবে? দেশজুড়ে সোমবার পালিত হল গোপাষ্টমী। সনাতন হিন্দু ধর্মে বিশ্বাসীরা এই দিনে গরুকে গো মাতা হিসাবে পুজো করে থাকেন। পশ্চিমবঙ্গে গরু পুজার রীতি তেমন চালু নয়।

কলকাতার লেক কালীবাড়িতে গোপাষ্টমী পালন হচ্ছে ১৩ বছর ধরে। এদিন বর্ধমানের গাভী কল্যান সমিতির একটি সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানে গোপালনের তাৎপর্য ও গোজাত পণ্যের উপকারিতা তুলে ধরেন তিনি। বুঝিয়ে বলেন গোবর থেকে তৈরি প্রাকৃতিক সার ব্যবহারের উপকারিতা। ভাষণ দিতে গিয়ে গরু আবেগে ভাষা হারান দিলীপ বাবু। তিনি বলেন, পুষতে হলে দেশি গরু পুষুন। খড়-কুটো খাবে আর দুধ দেবে। রোগ হয় না, সমস্যা নেই। এখানেই শেষ নয়, দিলীপ বাবু বলেন, ‘গরুর কুঁজে স্বর্ণনালি থাকে। তাতে সূর্যের আলো পড়লে সোনা তৈরি হয়।’ গোমাংস ভক্ষণকারীদের তিনি সমাজবিরোধী বলে মন্তব্য করেন, শিক্ষিত-বুদ্ধিমান লোকেরা কলকাতার রাস্তায় দাঁড়িয়ে গরুর মাংস খান। আমি তাদের বলব, কুকুরের মাংসও খান। যত জন্তু জানোয়ার আছে সবার মাংস খান। কিন্তু বাড়ি বসে খান। কোনও আপত্তি নেই। আমরা মায়ের দুধ ছাড়ার পর গরুর দুধ খেয়ে বড় হয়েছি। তাই গরু আমাদের কাছে মায়ের সমান। মায়ের অপমান হলে আমরা যেমন আচরণ করি গরুর ক্ষেত্রেও তেমনই করব। ভারতবর্ষের পবিত্র মাটিতে গরুকে হত্যা করা, গরুর মাংস খাওয়া মহা অপরাধ, ব্যাখ্যা দিলীপের।