Date : 2024-02-21

প্রাক্তন পাক রাষ্ট্রপ্রধান পারভেজ মুসারফকে মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ আদালতের…

ওয়েব ডেস্ক:- পাকিস্তানের প্রাক্তন রাষ্ট্রপ্রধান পারভেজ মুসারফকে মৃত্যুদণ্ড দিল সে দেশের বিশেষ আদালত। দেশদ্রোহিতার মামলায় তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। তিন বিচারপতি বিশিষ্ট পাকিস্তানের বিশেষ আদালতে প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্টের সাজা ঘোষণা হয়েছে। ২০০৭ সালে পাকিস্তানের শাসন ক্ষমতায় থাকাকালীন, সেদেশে জরুরী অবস্থা জারি করেছিলেন তিনি। এরপরেই মুসারফের বিরুদ্ধে মামলা করেন তৎকালীন পাক রাষ্ট্রপ্রধান নাওয়াজ শরিফ। পাকিস্তানের বিচারপতিকে বেআইনি ভাবে বরখাস্ত করা, বিদেশী শক্তির প্ররোচনায় লাল মসজিদে তল্লাশি অভিযান ও বেনজির ভুট্টো হত্যা মামলার ষড়যন্তের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তাঁব বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এই সব মামলার অভিযোগে পারভেজ মুসারফের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার অভিযোগে মামলা হয়েছে। যদিও প্রাক্তন পাক রাষ্ট্রপ্রধান এখনও পলাতক। ২০০৭ সাল থেকে দেশদ্রোহিতার অভিযোগে মুসারফের বিরুদ্ধে মামলা হলেও সেই মামলা ২০১৩ সাল পর্যন্ত আটকে ছিল আদালতেই। এরপর ২০১৪ সালের ৩১ মার্চ মুসরফের বিরুদ্ধে সমস্ত সাক্ষ্য প্রমাণ হাজির করা হয় তিন সদস্য বিশিষ্ট পাকিস্তানের বিশেষ আদালতে। মামলার শুনানি চলাকালীন পাকিস্তান ছেড়ে পালিয়ে যান প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্ট মুসরফ হোসেন। এর মধ্যেই ছয়বার স্পেশাল কোর্টের পুর্নগঠন করা হয়। ২০১৯ সালের ৫ ডিসেম্বর লাহোরের বিশেষ আদালত মুশারফকে ওই মামলায় জবানবন্দি দিতে নির্দেশ দেয়। বর্তমানে পাকিস্তানের প্রাক্তন রাষ্ট্রপ্রধান পারভেজ মুসরফ স্বেচ্ছায় দুবাইতে নির্বাসিত রয়েছেন বলেই খবর।