Date : 2021-04-23

নেই কোন গাড়ি, বাধ্য হয়ে বাবা পিঠেই হাসপাতালে নির্যাতিতা তরুণী

ওয়েব ডেস্ক  : ধর্ষণের ঘটনা শোনা যায় না এমন কোন দিন নেই এখন।তবে উত্তরপ্রদেশে এই ঘটনা দেখা যায় প্রায়শই । ধর্ষণের ঘটনার ক্ষেত্রে ডাক্তারি পরীক্ষার প্রয়োজন পড়ে। আর সেই ডাক্তারি পরীক্ষা জন্য হাসপাতালে যেতে গিয়ে এক অমানবিক ছবি ধরা পড়ল উত্তরপ্রদেশের এটোয়া জেলার মারহেরাতে।

জানা গেছে গত ১৩ ডিসেম্বর প্রতিবেশির হাতে ধর্ষিতা হন ১৫ বছরের এক কিশোরী।সেই ঘটনার কথা বাড়িতে জানালে পরিবারের পক্ষে স্থানীয় থানায় দায়ের করা হয় এফআইআর।পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত অঙ্কিত যাদবকে।সেই সঙ্গে মেয়েটিকে শারিরীক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয় হাসপাতালে।

হাসপাতালে যাওয়ার পরই অমানবিক পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয় তাকে।হাসপাতালে কোন স্ট্রচার বা উইল চেয়ার না পাওয়া যাওয়ার বাধ্য হয়েই বাবার পিঠে চেপেই শারিরীক পরীক্ষার জন্য যেতে হয় ওই নির্যাতিতাকে।ঘটনাটির ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল পড়ে যায় চারিদিকে।দেখা দিয়েছে বিতর্ক।

তবে এবিষয়ে এটোয়া মেডিকেল কলেজের প্রধান জানিয়েছেন বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন তিনি।