Date : 2020-06-02

নোভেল করোনা ভাইরাসকে শায়েস্তা করতে আপনার সাবান একাই একশো

বাজারে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের আকাল। পয়সা দিলেই মিলবে এমনটা নয়। তবে সমাধান কিন্তু আপনার হাতের কাছেই রয়েছে। আপনার সাবান দিয়েই জব্দ করে দিতে পারেন নোভেল করোনা ভাইরাসকে।

ভাইরাস, সেটা মোটামুটি যে ধরনেরই হোক, দু ধরনের নিউক্লিক অ্যাসিড আরএনএ কিংবা ডিএনএ এবং তার চারপাশে ক্যাপসিড নামের একটা আবরণ দিয়ে গঠিত। এর বাইরে এনভেলোপও থাকে অনেকের। এই আবরণগুলো প্রোটিন ও লিপিড এই দুটি জটিল যৌগ দিয়ে তৈরি। এই লিপিডের সঙ্গেই আদায় কাঁচকলায় সম্পর্ক সাবানের।

লিপিড অনেকটা তেল বা চর্বির মতো। জলে এটি দ্রবীভূত হয় না। কিন্তু সাবান তাকে দ্রবীভূত হতে বাধ্য করে। সাবান মূলত বিশাল ফ্যাটি অ্যাসিডের সোডিয়াম বা পটাশিয়াম লবণ। এর দুটো অংশ। একটা হাইড্রোফোবিক অর্থাৎ যা জলকে ঘৃণা করে কিন্তু তেলের সঙ্গে যুক্ত হয়। দ্বিতীয়টা হাইড্রোফিলিক। যা তেলকে ঘৃণা করে কিন্তু জলকে ভালোবাসে। যখন সাবান ভাইরাসের বাইরের লিপিড আবরণের সংস্পর্শে আসে, সে তখন তার হাইড্রোফিলিক হাত দিয়ে লিপিডকে ধরে ও বাকি হাতটা দিয়ে আশেপাশের জলকে ধরে। তারপর ভাইরাস থেকে তার লিপিড আবরণ ছিনিয়ে নেয়। অনেক সাবান অণুতে মিলে কাজটা করে থাকে। ফলে ভাইরাসের আবরণ টুকরোটুকরো হয়ে জলে দ্রবীভূত হয়ে যায়। নিজের সেফটি অর্থাৎ আবরণ হারিয়ে ভাইরাস বেঁচে থাকতে পারে না। সে যে ভাইরাসই হোক।

তাই ঘন ঘন সাবান দিয়ে ভালো করে হাত ধুয়ে ফেলুন। অন্তত ২০ সেকেন্ড ধরে হাত ধুয়ে নিন। এভাবেই আপনার সাবান একাই জব্দ করে দেবে ভাইরাসকে।