Date : 2020-10-27

রাজ্যকে কড়া চিঠি কেন্দ্রের, দীর্ঘ টানাপোড়েনের পরে কেন্দ্রীয় দলকে পরিদর্শনের অনুমতি নবান্নের

করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউন বিধি কতটা মানা হচ্ছে তা সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে সোমবার রাজ্যে পা রেখে কেন্দ্রীয় দল। একটি দল যায় উত্তরবঙ্গে, অপরটি ঘাঁটি গাড়ে কলকাতায়। এরপরই জল গরম হতে শুরু করে। কেন্দ্র ও রাজ্য যেখানে একযোগে কাজ করছে সেখানে কেন্দ্রীয় দলের এভাবে আচমকা আসা নিয়ে আপত্তি জানায় রাজ্য সরকার। সেই আপত্তির কথা স্পষ্টভাবে জানিয়েও দেয় নবান্ন। রাজ্য সরকারের অনড় মনোভাব দেখে বিষয়টি দিল্লিতে কর্তাদের জানায় কলকাতায় আসা কেন্দ্রীয় দলটি। মঙ্গলবার সকাল থেকে চড়তে থাকে উত্তেজনা। রাজ্য সরকার অনুমতি না দিলে কেন্দ্রীয় দল কী করে তা নিয়ে কৌতূহল বাড়তে থাকে। দুপুর দুটো নাগাদ গুরুসদয় দত্ত রোডে বিএসএফ ক্যাম্পে নিজেই পৌঁছে যান মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। সেখানেই ছিলেন কেন্দ্রীয় দলের প্রতিনিধিরা। ঘণ্টাখানেক সেখানে থেকে বেরিয়ে যান মুখ্যসচিব। বাইরে অপেক্ষমান সাংবাদিকদের কিছু না জানিয়েই বেরিয়ে যান তিনি। বিকেলে নবান্নে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুখ্যসচিব জানান, কেন্দ্রীয় দলটিকে শুধুমাত্র কলকাতায় পরিদর্শনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এরপরই দেখা যায় বালিগঞ্জ থেকে পথে বেরিয়ে পড়েছেন কেন্দ্রীয় দলের প্রতিনিধিরা। বিএসএফের সেই কনভয়ের একেবারে সামনে ছিল কলকাতা পুলিশের অ্যাসিন্ট্যান্ট কমিশনার পদপর্যাদার এক অফিসার। প্রথমে কনভয়টি যায় গড়িয়াহাটে। সেখান থেকে যাদবপুর, সুলেখা মোড়, সন্তোষপুর, অজয়নগর, বাইপাস, মুকুন্দপুর, ফের বাইপাস, যাদবপুর কানেক্টর, আনোয়ার শাহ রোড, লেক গার্ডেন্স ব্রিজ, লেক রোড, সার্দার্ন এভিনিউ, রাসবিহারী, চেতলা, নিউ আলিপুর, আলিপুর, হাজরা মোড়, এলগিন মোড়। এভাবেই ঘন্টা দুয়েক কলকাতার রাস্তায় ঘুরে বেড়ায় কেন্দ্রীয় দলটি। তবে গাড়ি থেকে কাউকে নামতে দেখা যায়নি।