Date : 2020-09-25

প্রয়াত সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তী, দলীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে, জানালেন সূর্যকান্ত

মারা গেলেন করোনায় আক্রান্ত সিপিএম নেতা তথা রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী শ্যামল চক্রবর্তী। বৃহস্পতিবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। বাইপাসের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন বর্ষীয়ান এই নেতা। সেখানে তাঁকে ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। কিন্তু ক্রমশই শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। অবশেষে বৃহস্পতিবার দুপুর ১.৪৫ মিনিটে সব লড়াই শেষ হয়ে যায়। শ্যামলবাবুর মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, তাঁর মৃত্যুতে রাজনৈতিক জগতের ক্ষতি হল। প্রয়াত নেতার পরিবার-পরিজন ও অনুরাগীদের আন্তরিক সমবেদনাও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

কোভিড পজিটিভ হওয়ায় গত ৩১ জুলাই বাইপাসের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল শ্যামল চক্রবর্তীকে। এমনিতেই তাঁর কিডনির সমস্যা ছিল। চলছিল ডায়ালিসিস। এর সঙ্গে শ্বাসকষ্টের সমস্যা তীব্র আকার ধারণ করে। দিতে হয় অক্সিজেন সাপোর্ট। হাসপাতাল সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার দুবার হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি।

বর্ষীয়ান এই সিপিএম নেতা দীর্ঘদিন সিটুর রাজ্য সভাপতি ছিলেন। ছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ। সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটিরও সদস্য ছিলেন তিনি।জ্যোতি বসুর মন্ত্রিসভায় দীর্ঘদিন পরিবহণমন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেন তিনি। বয়সজনিত কারণে শেষদিকে দল ও শ্রমিক সংগঠনের কাজে আর সেভাবে সময় দিয়ে উঠতে পারতেন না তিনি।শ্যামলবাবুর মৃত্যুতে সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র জানিয়েছেন, “আমাদের পার্টির প্রবীণ নেতা কমরেড শ্যামল চক্রবর্তীর বেলা দুটো নাগাদ জীবনাবসান হয়েছে। আজ দুপুরে পরপর দুবার ওঁর হার্ট অ্যাটাক হয়। প্রথম বার কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনার পরে আর একটা অ্যাটাকে সব শেষ হয়ে যায়। যেহেতু উনি কোভিড পজিটিভ ছিলেন সেই কারণে ওঁর শেষযাত্রার কর্মসূচি পরে জানানো হবে। আমাদের সমস্ত পার্টি অফিসে দলীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে।”