Date : 2020-10-01

প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়, সাতদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা

ছিলেন গভীর কোমায় আচ্ছন্ন। ছিলেন জাগতিক সবকিছুর উর্ধ্বে। তবুও ছিলেন। কিন্তু দিল্লির সেনা হাসপাতালে সোমবার শেষ হয়ে গেল যাবতীয় লড়াই। শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। সোমবার এক টুইট বার্তায় বাবার মৃত্যুর কথা জানান অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়। এই ঘোষণার পরেই শোকের ছায়া নেমে আসে গোটা দেশজুড়ে। শুধু প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিই নন, প্রণব মুখোপাধ্যায় ছিলেন ভারতের সংসদীয় রাজনীতির ইতিহাসে নিজেই এক অধ্যায়। বহু ঘটনার সাক্ষী। তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ দলমত নির্বিশেষে নেতানেত্রীরা। তাঁর মৃত্যুতে সাতদিনের রাষ্ট্রীয় শোকের ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই সময় সমস্ত সরকারি দফতরে অর্ধনমিত থাকবে জাতীয় পতাকা।

প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির মৃত্যুতে তাঁর শোকবার্তায় রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ বলেছেন, সর্বদা মাটির কাছাকাছি ছিলেন তিনি। সৌজন্য ও মিশুকে স্বভাবের জন্য রাজনৈতিক মহলে তিনি ছিলেন জনপ্রিয়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন, দেশের উন্নয়নে তাঁর ভূমিকা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। ২০১৪ সালে দিল্লিতে আমি নতুন ছিলাম। প্রথম দিন থেকে আমি তাঁর আশীর্বাদ, পরামর্শ ও সমর্থন পেয়েছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, প্রণবদার উজ্জ্বল রাজনৈতিক জীবন পুরো দেশের কাছেই গর্বের। প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির পরিজনদের তাঁর সমবেদনা জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর শোকবার্তায় বলেছেন, তাঁর মৃত্যুতে জাতীয় জীবনে এক অপূরণীয় শূন্যতার সৃষ্টি হল। ব্যক্তিগতভাবে প্রণবাবু আমাকে অত্যন্ত স্নেহ করতেন এবং বিভিন্ন সময়ে আমি তাঁর ঘনিষ্ট ও মূল্যবান উপদেশ পেয়েছি। তিনি আমার জীবনে অভিভাবকতুল্য ছিলেন।