Date : 2020-10-01

ভারতে নিষিদ্ধ হল PUBG সহ ১১৮ টি চিনা অ্যাপ

পূর্ব লাদাখে ফের লালফৌজ অনুপ্রবেশের চেষ্টা করতেই বেজিংকে পাল্টা দিল ভারত। PUBG ছাড়াও ১১৮টি মোবাইল অ্যাপ নিষিদ্ধ করল কেন্দ্রীয় সরকার৷ দেশের সার্বভৌমত্ব ও নিরাপত্তার পক্ষে বিপজ্জনক হওয়ায় এই অ্যাপগুলিকে নিষিদ্ধ করা হল৷তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৬৯-এ ধারায় ওই অ্যাপগুলিকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এর আগে গালওয়ান উপত্যকায় ভারত-চিন সেনা সংঘর্ষের জেরে প্রথম দফায় টিকটক-সহ ৫৯টি চিনা অ্যাপকে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। পরে সেই সংখ্যা আরও বাড়ে। এবার আরও ১১৮টি অ্যাপ নিষিদ্ধ হওয়ায় ভারতে মোট ২২৪টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ হয়ে গেল।

গত জুন মাসে গালওয়ান উপত্যকায় প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা অতিক্রম করে ভারতীয় সীমায় পা রাখে লালফৌজ। ভারতীয় সেনা বাধা দিলে শুরু হয় সংঘর্ষ। ভারতের তুলনায় দলে ভারি ছিল চিনারা। প্রাণ হারান কমান্ডার পর্যায়ের এক অফিসার ছাড়াও ১৯ জন জওয়ান। এরপর থেকেই চরমে ওঠে ভারত-চিন দ্বৈরথ। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই চিনের এই আগ্রাসী ভূমিকা ভালো চোখে নেয়নি নয়াদিল্লি। কিন্তু আলোচনাতে বরফ গলেনি। সূত্রের খবর অনুযায়ী, এখনও প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর মুখোমুখি দাঁড়িয়ে রয়েছে দু-দেশের সেনা। এই পরিস্থিতিতে চিনা অ্যাপকে নিষিদ্ধ করে ভারত ফের বার্তা দিল বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

নজর রাখা যাক নিষিদ্ধ হওয়া অ্যাপগুলির তালিকার দিকে। এপিইউএস লঞ্চার প্রো, এপিইউএস টার্বো ক্লিনার ২০২০, এপিইউএস ফ্ল্যাশলাইট, কাট কাট, বাইদু, ফেসইউ, শেয়ার সেভ বাই জিয়াওমি, ক্যামক্যাড, ক্যাম ওসিআর, ইননোট, উই চ্যাট রিডিং, গভর্মেন্ট উই চ্যাট, পিটু, উই চ্যাট ওয়ার্ক, সাইবার হান্টার, লাইফ আফটার, পাবজি মোবাইল লাইট, ওয়ারপ্যাথ, গেম অব সুলতানস ইত্যাদি।