Date : 2020-10-25

নিউজ চ্যানেলে টিআরপি জালিয়াতির অভিযোগ, স্বচ্ছতার অভিযানে ৩ মাস রিপোর্টে কোপ

জল্পনা ছিল, সন্দেহ ছিল। কান পাতলে ফিসফাসও ছিল। অবশেষে সেই ফিসফাসই বড় আকার নিল। টিভি নিউজ চ্যানেলে টিআরপি রেটিংয়ে কারচুপির অভিযোগকে মান্যতা দিয়ে আগামী তিনমাস সাপ্তাহিক রেটিং প্রকাশ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্রডকাস্ট অডিয়েন্স রিসার্চ কাউন্সিল বা বার্ক। অর্থাৎ আগামী তিন মাস কোনও টেলিভিশন রেটিং পয়েন্ট বা টিআরপি প্রকাশ করবে না বার্ক। এই সময়পর্বে পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখবে সংস্থা। যদি জালিয়াতি হয় কোন পথে হচ্ছে, কে বা কারা জড়িত ইত্যাদি প্রশ্নে কাটাছেঁড়া হবে।

বিভিন্ন সংবাদ চ্যানেলের মধ্যে কার কতটা জনপ্রিয়তা, কোন নিউজ চ্যানেল বেশি লোক দেখেন, সারাদিনে কতক্ষণ দেখেন ইত্যাদি প্রশ্নে সাপ্তাহিক রিপোর্ট প্রকাশিত হয় প্রতি বৃহস্পতিবার। এই রিপোর্টকেই বলা হয় টেলিভিশন রেটিং পয়েন্ট বা টিআরপি। গত সপ্তাহের শনি থেকে শুক্র, ৭ দিনের এই পর্যায়ক্রম নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে মূল্যায়ন করা হয়। সেইমতো শনি থেকে শুক্রর হিসাব পরবর্তী সপ্তাহের বৃহস্পতিবার প্রকাশিত হয়। আগে টেলিভিশন অডিয়েন্স মেজারমেন্ট বা ট্যাম নামে একটি সংস্থার মাধ্যমে এই মূল্যায়ন হত।বিতর্ক তখন থেকেই। সঠিক মূল্যায়ন হচ্ছে না, জনপ্রিয়তার সঠিক ছবি ধরা পড়ছে না, কম জনপ্রিয় চ্যানেলে রেটিংয়ে ওপরের দিকে, বেশি জনপ্রিয় চ্যানেল আপেক্ষিকভাবে পিছিয়ে, বিভিন্ন প্রশ্ন উঠতে থাকে। টাকার বিনিময়ে রেটিং বাড়ানোর অভিযোগ উঠতে থাকে। এই পরিপ্রেক্ষিতেই বাতিল হয় ট্যাম। তার পরিবর্তে গড়ে ওঠে নতুন সংস্থা ব্রডকাস্ট অডিয়েন্স রিসার্চ কাউন্সিল বা বার্ক। বলা হয়েছিল বার্ক এলে দুধ কা দুধ, পানি কা পানি হবে। রিপোর্ট হবে স্বচ্ছ। মূল্যায়ন হবে নিরপেক্ষ। কিন্তু বেশিদিন লাগল না। টিআরপি কেলেঙ্কারির কলঙ্ক এখন বার্কের রিপোর্ট ঘিরেও।