Date : 2020-12-03

লিফটে নয়, সিঁড়ি ভাঙতে ভাঙতে উপরে উঠেছি, বিজয়া সম্মিলনীতে বার্তা শুভেন্দুর

রাজ্যে শাসক দল তৃণমূলকে নিশানা করতে বিরোধীরা প্রায়ই বলে থাকেন, তৃণমূলে একটাই পোস্ট, বাকি সব ল্যাম্পপোস্ট। একুশের বিধানসভা ভোটের আগে মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করতে সামাজিক মাধ্যমে এমন আরও বহু পোস্ট আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা তাই ষোলো আনা। তার আগেই নিজের ‘পোস্ট’ নিয়ে নিজেই যেন অনেক প্রশ্নের জবাব দিয়ে দিলেন রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। একুশের ভোটের আগে তিনি দলবদল করতে চলেছেন, তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যেতে চলেছেন এমন জল্পনা বহুদিন ধরেই চলছে। দলীয় বহু বৈঠকে তাঁর গরহাজির থাকা সেই সব জল্পনাকে আরও শক্তিশালী করেছে। তবে শুভেন্দু নিজে কখনই তেমন একটা মুখ খোলেননি। শনিবার হলদিয়ায় শুভেন্দু যা বলেছেন তাতে অবশ্য বিতর্ক আরও জমাট বাঁধতে পারে। নন্দীগ্রামের সীতানন্দ কলেজে এক বিজয়া সম্মিলনীতে হাজির ছিলেন নন্দীগ্রামের এই বিধায়ক। সেখানে তিনি বলেন, ১৯৮৯ সালে উচ্চ-মাধ্যমিক পাশ করার পরে ১৯৯৫ সালে অবিভক্ত কংগ্রেসের টিকিটে হাত চিহ্নে প্রথমবার কাউন্সিলর হন। এরপর তিনি বলেন, “প্যারাসুটেও নামিনি, লিফটেও উঠিনি। সিঁড়ি ভাঙতে ভাঙতে মঞ্চে উঠেছি। আমাকে ওসব করে কোনও লাভ হবে না। ছোটলোকদের দিয়ে বাজে কথা বলিয়ে ভাবছে আমি উত্তর দেব। কুকুর পায়ে কামড়ালে মানুষ কখনও কুকুরের পায়ে কামড়ায় ?” শুভেন্দু অধিকারীর এইসব মন্তব্য জল্পনার মাত্রা কয়েকগুণ বাড়িয়েছে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, এইসব মন্তব্যের মাধ্যমে সব রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকেই বার্তা দিতে চেয়েছেন নন্দীগ্রামের এই বিধায়ক।