Date : 2021-04-13

টিকার প্রথম পর্যায়ে সব খরচ কেন্দ্রের, মুখ্যমন্ত্রীদের বৈঠকে বললেন প্রধানমন্ত্রী

১৬ জানুয়ারি দেশজুড়ে শুরু হতে চলেছে প্রথম পর্যায়ের করোনা টিকাকরণ। ১ কোটি স্বাস্থ্যকর্মী এবং ২ কোটি কোভিড যোদ্ধাদের এই পর্বে টিকার জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে। তার আগে প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে ও কেন্দ্র-রাজ্য সমন্বয় বাড়াতে সোমবার সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ভার্চুয়াল সেই বৈঠকে নবান্ন থেকে যোগ দিয়েছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। মুখ্যমন্ত্রীদের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারতে যে দুটি ভ্যাকসিনকে (কোভিশিল্ড ও কোভ্যাকসিন) চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে তা আর্থিকভাবে সাশ্রয়ী। ভারতের পরিবেশ ও পরিস্থিতি বুঝেই এই দুই টিকাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।একইসঙ্গে তাঁর ঘোষণা, প্রথম পর্যায়ের টিকাকরণে সব খরচ বহন করবে কেন্দ্রীয় সরকার। মুখ্যমন্ত্রীদের উপস্থিতিতে মোদীর এই ঘোষণাকে তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে। বিশেষত, সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, রাজ্যের মানুষকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন সরবরাহ করবে রাজ্য সরকার। বিষয়টি নিয়ে তৃণমূল-বিজেপির মধ্যে বাগযুদ্ধ শুরু হতে তাই দেরি হয়নি। দিল্লির বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী সুকৌশলে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে এরই জবাব দিলেন বলে একাংশের ধারনা। যদিও কেন্দ্রীয় সরকার আগেই জানিয়েছিল, বিনামূল্যেই দেশবাসীর হাতে করোনার টিকা তুলে দেওয়া হবে।