Date : 2021-06-21

মুকুলের ঘর ওয়াপসি

দিনভর রাজনৈতিক মহলে জল্পনা। অবশেষে বিকেল পৌনে 5টা নাগাদ তৃণমূল শিবিরে ফিরলেন মুকুল রায়। সাড়ে 3বছর আগে ঘাসফুল শিবির ত্যাগ করে পদ্মফুলে যোগ দিয়েছিলেন একদা দলের সেকেন্ড ইন কম্যান্ড মুকুল রায়। এবার সেই মুকুলই ফিরলেন ঘাসফুল শিবিরে।

একুশের নির্বাচনের আগেই দলবদল করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। সেই প্রসঙ্গ টেনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন মুকুল রায় শুভেন্দুর মতো অতটা খারাপ নয়। সেইদিন থেকেই শুরু হয়েছিল জল্পনা। শুক্রবার দিনভর জল্পনা চলতে থাকে। তারপর ভোট পরবর্তী সময় থেকে বেসুরোদের ঘর ওয়াপসিতে গা ভাসালেন মুকুল রায়। দলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরলেন মুকুল রায় ও ছেলে শুভ্রাংশু। নবীন প্রবীণ সংঘাত ভুলে মুকুলকে উত্তরীয় পরিয়ে দলে স্বাগত জানান দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ঘরের ছেলে ঘরে ফিরল বলে মন্তব্য করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিক্ততা ভুলে নেত্রীর মন্ত্বব্য, ভয় দেখিয়ে মুকুল রায়ের মুখ বন্ধ রাখতে চেয়েছিল বিজেপি। বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ফিরে মুকুল মানসিক শান্তি পেয়েছে। মুকুলকে নিয়ে প্রশংসায় পঞ্চমুখ হতে দেখা গেল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

মুকুল রায়ের সঙ্গে যারা বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তারাও সবুজ শিবিরে ফিরবেন বলে বিশ্বাস নেত্রীর। কিন্তু ভোটের আগে টাকার লোভে যারা গদ্দারি করেছে, তাদের ফেরানো হবে না বলেও শুক্রবার কড়া বার্তা দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি করা সম্ভব নয় বলেই পুরনো ঘরে ফিরলেন বলে সাংবাদিক বৈঠকে জানান মুকুল রায়।

মুকুল রায়ের অসুস্থ স্ত্রীকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর মুকুলপুত্র শুভ্রাংশুর মুখেও শোনা গিয়েছিল অভিষেক বন্দনা। তারপরই প্রকাশ্যে আসে দিলীপ ঘোষের সঙ্গে মুকুল রায়ের সংঘাত। সবমিলিয়ে মুকুল রায়ের তৃণমূল যোগ নিয়ে জল্পনা চলছিলই। অবশেষে সেই যবনিকা পতন হল।