Date : 2021-06-21

প্রয়োজন ভগবানের আধার কার্ড!

ভারতের যেকোনো নাগরিকের কাছে নিজ পরিচয় প্রমানের গুরুত্বপূর্ণ নথির মধ্যে অন্যতম হল আধার কার্ড। সেই কার্ডের সাথেই সেই ব্যাক্তির সমস্ত ডিটেলস্ যুক্ত করতে হয়। কিন্তু এই আধার কার্ডের জন্য এক ব্যক্তিকে পরতে হয়েছে সমস্যায়। কারন তার কাছে চাওয়া হয়েছে ভগবানের আধারকার্ড! শুনতে অবাক লাগলেও ঘটনাটি সত্যি।

উত্তরপ্রদেশের বান্দা জেলার আত্তারা তেহসিলের কুরহারা গ্রামের ওই এলাকাতেই রয়েছে বিশাল বড় রামমন্দির। সেই মন্দিরে অধীনে থাকা সাত হেক্টর জমিতে রাম সীতার মন্দির রয়েছে। সেই মন্দিরে পুজোর পাশাপাশি মন্দিরের জমিতে চাষাবাদ করেন মন্দিরের পুরোহিত মহন্ত রামকুমার দাস। সম্প্রতি তিনি মন্দিরে গম চাষ করেছিলেন। ফলন ও ভালো হয়েছিল। তাই মান্ডিতে গিয়েছিলেন তা বিক্রি করতে। কিন্তু সেখানে গিয়েই বিপদে পরলেন তিনি। আধিকারিকরা বলেন ওই ফসল বিক্রি করতে হলে যাদের নামে জমি তাদের আধার কার্ড প্রয়োজন। তখন সমস্যায় পরেন ওই পুরোহিত। কারন মন্দিরটি রাম সীতার নামে।

সেই পুরোহিত রাম সীতার আধারকার্ড আনবেন কোথা থেকে। অনেক অনুরোধের পরেও কোনো সুরাহা করতে পারেন নি তিনি। সাব ডিভিশনাল ম্যাজিস্ট্রেট সৌরভ শুক্লার কাছে আবেদন জানিয়েও কোনও সুরাহা হয়নি। তাঁকে আধিকারিকরা জানান, যাঁর নামে জমির রেজিস্ট্রেশন, সেই জমির ফসল বেচতে হলে উক্ত ব্যক্তির আধার কার্ডই প্রয়োজন। শেষপর্যন্ত রাম এবং সীতার আধার কার্ড দেখাতে না পেরে অনেকটাই কম দামে ফসল বেচতে বাধ্য হন মন্দিরের পুরোহিত মহন্ত রামকুমার দাস। যদিও এই বিষয় সাব ডিভিশনাল ম্যাজিস্ট্রেটের সাফাই, ওই পুরোহিতের কাছ থেকে কখনওই ভগবানের আধার কার্ড চাওয়া হয়নি। তাঁকে কেবল নিয়মের ব্যাপারে অবগত করা হয়েছিল।