Date : 2021-10-16

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের মূল্যায়ন পদ্ধতি নিয়ে কিছু প্রশ্ন, কিছু ধোঁয়াশা

ওয়েব ডেস্ক : 2019-এ অতিমারি ছড়ানোর সময় থেকেই দেশ জুড়ে পঠন-পাঠনে অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। স্কুল, কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস নেওয়া বন্ধ। অনলাইনে কিছু ক্লাস বা পরীক্ষা নেওয়া হলেও স্কুল -এর চূড়ান্ত পরীক্ষাগুলির ক্ষেত্রে তা সম্ভব নয়। তাই দেশ জুড়েই মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের পরীক্ষা বাতিল হয়েছে। তার পরিবর্তে ঘোষিত হয়েছে মূল্যায়ন পদ্ধতি।এই দুই পরীক্ষার মূল্যায়ন কোন পদ্ধতিতে হবে জানিয়েছে পর্ষদ ও সংসদ। কিন্তু সেই মূল্যায়ন নিয়ে বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তরে ধোঁয়াশা রয়েছে বলে মনে করছেন শিক্ষকদের একাংশ। অভিভাবক ও পরীক্ষার্থীদের একাংশও ধন্দে রয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

উচ্চ মাধ্যমিকের মূল্যায়নে মাধ্যমিকের সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া চারটি বিষয়কে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে 40 শতাংশ।একাদশের বার্ষিক মূল্যায়নে লিখিত পরীক্ষার নম্বরে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে 60 শতাংশ । এই দুয়ের যোগফলই হবে উচ্চ মাধ্যমিকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে লিখিত পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বর ।

সংসদের বিধি অনুযায়ী প্রতিটি বিষয়ে 30 নম্বর করে পেলে পরীক্ষার্থীকে পাশ বলে গণ্য করা হয় । অর্থাত্ ল্যাবরেটরি ভিত্তিক পরীক্ষার 70-এর মধ্যে 21 পেলে পাশ ধরা হয় । নন ল্যাব বিষয়ে লিখিত পরীক্ষায় 80-এর মধ্যে 24 পেলে পাশ করা হয় ।

প্রশ্ন হচ্ছে যে সব পরীক্ষার্থী মাধ্যমিকে সব বিষয়ে 25 পেয়ে পাশ করেছেন অথচ উচ্চ মাধ্যমিকে 80-এর মধ্যে 24 ও 70-এর মধ্যে 21 পেয়ে পাশ করেছেন তাদের কি হবে ?

কারণ সংসদের মূল্যায়ন অনুযায়ী ওই পরীক্ষার্থীদের ল্যাব ভিত্তিক পরীক্ষায় মাধ্যমিক ও একাদশ শ্রেনীর নম্বর যোগ করে 21 হচ্ছে না। নন ল্যাব বিষয়ে ওই পরীক্ষার্থীদের মাধ্যমিক ও একাদশ শ্রেনীর নম্বর যোগ করে লিখিত পরীক্ষার মোট নম্বর 24 হচ্ছে না।

করোনাকালে যে পরিস্থিতি তৈরী হয়েছে তার নজির সাম্প্রতিক অতীতে নেই। ফলে শিক্ষা দফতরের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের মূল্যালয় পদ্ধতি ঘোষণা করতে গিয়ে নতুন পথে হাঁটতে হচ্ছে। তাই শিক্ষকরা এবং পড়ুয়া ও অভিভাবকেরা মনে করছেন সমস্ত দিক বিচার করেই মূল্যায়নের পথে হাঁটবে শিক্ষা দফতর।