Date : 2021-10-16

মোদীর নতুন মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়ে মোটেই খুশি নন বাবুল সুপ্রিয়

মোদীর নতুন মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়েছেন বাবুল সুপ্রিয়। বাদ পড়ার পর তাঁর একাধিক টুইট জল্পনা বাড়িয়েছে। বাবুল যে মোটেই খুশি নন, সেই হতাশা তাঁর টুইটে ফুটে উঠেছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ। অন্যদিকে, বাংলার নতুন চার কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীকে অচল পয়সা বলে কটাক্ষ কুনাল ঘোষের।

2019 সালে দ্বিতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় আসার পর 53 জনের মন্ত্রিসভা গঠন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানে বাংলা থেকে প্রতিমন্ত্রী হয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয় ও দেবশ্রী চৌধুরী। বাবুল ছিলেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী। কিন্তু এবার রদবদলে বাদ পড়েছেন দুজনেই। নতুন চার মন্ত্রী পেয়েছে বাংলা।বুধবার সন্ধ্যায় বাবুল সুপ্রিয় টুইট করেন তাঁকে ইস্তফা দিতে বাধ্য করা হয়েছে।

বাবুল আরও একটি টুইট করেন যেখানে তিনি লেখেন, “প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ আমাকে দেশের মানুষের সেবা করার সুযোগ দেওয়ার জন্য। আমি খুবই খুশি যে কোনওরকম দুর্নীতির অভিযোগ ছাড়াই আমি কাজ করেছি। আসানসোলের মানুষকে ধন্যবাদ আমার উপর ভরসা রাখার জন্য।’

মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়ার পর বাবুলের একের পর এক টুইট হতাশারই প্রকাশ বলে মনে করছেন অনেকে। বাংলার নতুন চার মন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানালেও তাঁর নাম বাদ পড়ায় হতাশা প্রকাশ পেয়েছে বাবুলের টুইটে। আরও ট্যুইটে তিনি লেখেন, “ধোঁয়া বেরোতে দেখা গেলে, কোথাও না কোথাও আগুন তো থাকবেই।’যা যথেষ্ট ইঙ্গিতবহ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। এর পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, দুজনের নাম বাদ পড়লেও চার জন মন্ত্রী হয়েছেন। যা বাংলার জন্য গর্বের। এদিকে বাবুলের নাম বাদ পড়ায় আসানসোলের মহিশিলায় বাবুল সুপ্রিয়র বাসভবনের সামনে উল্লাস দেখা যায়। বাজনা সহকারে বাজি ফাটিয়ে উল্লাসে মেতে ওঠেন বেশকিছু মানুষ।

মোদীর সাত বছরের শাসনে বাংলা থেকে একজনও পূর্ণমন্ত্রী হননি। যা নিয়ে তীর্যক মন্তব্য করেছেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ। কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেন কুণাল। তাঁর মতে, এই মন্ত্রিত্ব সান্ত্বনা পুরস্কার। নিশীথ, শান্তনুদের অচল পয়সার সঙ্গে তুলনা করেন তিনি।একুশের বিধানসভায় আশাভঙ্গ হয়েছে বিজেপির। টলিগঞ্জ বিধানসভা থেকে হেরেছেন বাবুল। তাই রাজনৈতিক মহলের অনেকেরই প্রশ্ন, বাবুলের ব্যর্থতাই কি গুরুত্ব কমিয়েছে মোদীর কাছে? অনেকেই মনে করছেন, আপাতত নতুন চার প্রতিমন্ত্রীকে সামনে রেখে বাংলায় ঘুঁটি সাজাতে চাইছেন নমো।