Date : 2021-09-20

শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ শ্যামল আদক কে রক্ষাকবচ দিলো না কলকাতা হাইকোর্ট।

স্নেহাশীষ চট্টোপাধ্যায় রিপোর্টার : শুভেন্দু ঘনিষ্ট শ্যামল আদকের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা মামলা নিষ্পত্তি করলেন না বিচারপতি রাজা সেখর মান্থা।শুভেন্দু অধিকারীর মামলার সাথে সামঞ্জস্য নেই মন্তব্য বিচারপতি রাজশেখর মন্থর।

শুভেন্দু ঘনিষ্ট শ্যামল আদকের আইনজীবী পারমজিত সিং পাটুয়ালিয়া দাবি,গত সোমবার শুভেন্দু অধিকারীর মামলার সাথে এই মামলার সামঞ্জস্য রয়েছে । তবুও আমার মক্কেলের সাথে যে ঘটনা ঘটেছে তা আদালতের সামনে তুলে ধরছি। ২০১৭ সালের সেপ্টম্বরমাসে হলদিয়া পুরসভার চেয়ারম্যান ছিলেন শ্যামল আদক।তিনি হলদিয় পুরসভার ২৫ নম্বরওয়ার্ডের পৌরপিতা ছিলেন।
১৫ই জানুয়ারি ২০২১ চেয়াম্যান পদ থেকে ইস্তফা দেন।কারণ তিনি শুভেন্দু অধিকারী সাথেই বিজেপিতে যোগদান করেন।
ভোটের ফলাফল ঘোষণার পর শ্যামল আদকের বাড়ি ,সম্পত্তি ভাঙচুর করা হয়বলে অভিযোগ। এবিষয়ে হলদিয়া থানায় অভিযোগ জানিয়ে কোন সুরাহা হয়নি। চলতি বছরের জুলাই মাসে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনে অভিযোগ করা হয়।
তারা মা রোড লাইন নামে শ্যামল আদকের পার্টনারশিপ ব্যবসা আছে। আমার বিরুদ্ধে হলদিয়া থানায় অভিযোগ করা হয় আমি হলদিয়া ডকে আমি একটি সিন্ডিকেট চালাই এবং প্রতি লরি থেকে১০০টাকা করে তোলা তুলি।

শুভেন্দু অধিকারীর মতোই আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ গুলি আনা হয়েছে চলতি বছরের জুলাই মাসে।
এই সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত।চলতি বছরের৪ঠা মে আজাদ হিন্দ বাড়িতে হামলা চালানো হয়।
এবং আমার বেশ কিছু সম্পতি নষ্ট করা হয়েছে।যার ক্ষতির পরিমাণ৩কোটি ৪৩লক্ষ টাকা।
৩১শে অগাস্ট আমার বিরুদ্ধে সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন নিম্ব আদালত।
আমার স্ত্রী দুরারোগ্য ক্যানসারের আক্রান্ত।পুলিস জুলাই মাস থেকে গ্রেফতারি পরোয়ানা ছাড়াই আমার পরিবার কে বিরক্ত করছে।
আমি আমার পরিবার বহু অভিযোগ করেছি হলদিয়া থানায় কিন্তু পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি।অথচ আমার বিরুদ্ধে একটি FIR করা হয়েছে লরি থেকে টাকা তোলার অভিযোগে।

বিচারপতি জানতে চান আদালতের কাছে কি চাইছেন?
উত্তরে আইনজীবী জানান শুভেন্দু অধিকারীর মতোই শ্যামল আদকের অভিযোগের তদন্তের ওপর স্তগীতাদেশ জারি করুক আদালত।
বিচারপতি বলেন শুভেন্দু অধিকারীর মামলার সাথে২২৬এ এই মামলার কোন সম্পর্ক নেই।এই যুক্তিতে এই মামলার কোন গ্রহণ যোগ্যতা নেই।আইনজীবী বলেন আমাদের কিছু সময় দেওয়া হোক।আগামী মঙ্গলবার ফের শুনানি।ধার্য হলেও কোন অন্তর্বর্তী নির্দেশ দিলেন না।