Date : 2021-10-22

রাতারাতি দুই ছাত্রের ব্যাঙ্ক আকাউন্টে জমা পড়ল কোটি কোটি টাকা!

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক : কোটি কোটি টাকা উপচে পড়ল দুই ছাত্রের আকাউন্টে। রাতারাতি এই ঘটনায় হতবাক বিহারের কাটিহারের ওই দুই ছাত্র। ব্যাঙ্ক স্টেটমেন্ট খতিয়ে দেখতে তারা তড়িঘড়ি ছুটে যায় এটিএমে। যদি এমন ভাগ্য সবার হত, এই আশাতেই রয়েছেন গ্রামবাসীরা। উত্তর বিহার গ্রামীণ ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট রয়েছে ওই দুই ছাত্রের। স্কুলের খরচ চালানোর জন্য সরকারের তরফে কিছু টাকা পাওয়ার কথা ছিল। সেই টাকা এসেছে কিনা, অভিভাবকদের সঙ্গে নিয়ে গ্রামের পাবলিক ইন্টারনেট সেন্টারে যায় তারা। সেখানে গিয়েই চক্ষু চড়কগাছ।

ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র আশিসের অ্যাকাউন্টে জমা পড়ে ৬.২ কোটি টাকা। অন্যদিকে আরেক ছাত্র গুরু চরণ বিশ্বাসের অ্যাকাউন্টে জমা পড়ে ৯০০কোটি টাকা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গ্রামের প্রধান। বিষয়টি খতিয়ে দেখছে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ। কাটিহারের জেলাশাসক উদয় মিশ্র জানিয়েছেন, বুধবার সন্ধেয় এই খবর মিলেছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ব্রাঞ্চ ম্যানেজার জানিয়েছেন, কম্পিউটার সিস্টেমে যান্ত্রিক ত্রুটির জন্যই এই ঘটনা। তিনি জানান, ওই দুই ছাত্রের অ্যাকাউন্টে বিপুল পরিমাণ টাকার অঙ্ক দেখালেও, আসলে তাদের অ্যাকাউন্টে ওই টাকা নেই। ব্যাঙ্কের থেকে ইতিমধ্যে রিপোর্ট চেয়ে পাঠানো হয়েছে। 

এই ধরণের ঘটনা বিহারে নতুন নয়। পাটনার বাসিন্দা এক ব্যক্তির অ্যাকাউন্টেও ৫ লক্ষ টাকা জমা পড়েছিল। ভুল করে সেই টাকা চলে যায়  রঞ্জিত দাস নামে ওই ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে। সেই টাকা ফেরত দিতে অস্বীকার করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাকে আর্থিক সাহায্য দিয়েছেন বলে দাবি করেন রঞ্জিত। তাঁর সাফাই, প্রধানমন্ত্রী জনগণকে ১৫ লক্ষ টাকা দেওয়ার  কথা ঘোষণা করেছিলেন। ওই টাকারই প্রথম কিস্তি পেয়েছেন তিনি। ওই টাকা ইতিমধ্যে খরচ করে ফেলেছেন এবং ফেরত দিতে পারবেন না বলেও জানান রঞ্জিত। একাধিকবার ব্যাঙ্কের নোটিস পাঠানো সত্বেও কোনো সাড়া মেলেনি। অবশেষে গ্রামীণ ব্যাঙ্কের ম্যানেজারের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।