Date : 2021-09-20

বেসরকারি স্কুলের কাছে রিপোর্ট তলব কলকাতা হাইকোর্টের

স্নেহাশীষ চট্টোপাধ্যায়, রিপোর্টার : রাজ্যের সমস্ত বেসরকারি স্কুলগুলোতে নির্দিষ্ট সময় পেরিয়ে যাবার পরেও অভিভাবক এবং অভিভাবকরা স্কুলের বেতন পাচ্ছেন না পাশাপাশি বেসরকারি স্কুলগুলোর বিরুদ্ধে অভিযোগ ছাত্রছাত্রীরা লাইব্রেরী ল্যাবরটরি পুলকার ব্যবহার না করলেও স্কুল ফিস এর মধ্যেই সেগুলো যুক্ত করে দেওয়ার হচ্ছে জানিয়েই কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের হয় শুক্রবার সেই মামলার শুনানিতে।

বেসরকারি বিদ্যালয়গুলির বেতন জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট সময়সীমা ধার্য করল কলকাতা হাইকোর্ট। ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে যারা এখনো পর্যন্ত বিদ্যালয় ফি জমা করেননি তাদের বকেয়া ফিয়ের ৫০% অবিলম্বে জমা করতে হবে বাকি ২৫% দুই সপ্তাহের মধ্যে জমা করতে হবে। বিদ্যালয় গুলিকে বকেয়া ফি কত রয়েছে তার তালিকা আদালতে পেশ করতে হবে। আদালতের কাছে অভিযোগ এসেছে বিদ্যালয়গুলির অতিরিক্ত ফি তারা অভিভাবকদের কাছ থেকে নিচ্ছেন। যে সমস্ত সার্ভিস তারা দিচ্ছেন না সেই সমস্ত সার্ভিসের প্রিয় তারা একত্রিত করে মাসিক ফ্রী হিসাবে ধার্য করে নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এক্ষেত্রে আদালতের নির্দেশ অবিলম্বে বিদ্যালয়গুলিতে বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে সেই বিল অভিভাবকদের কাছে পাঠাতে হবে।নির্দেশ বিচারপতি ইন্দ্র প্রসন্ন মুখোপাধ্যায় ডিভিশন বেঞ্চের।ছাত্র ও বিদ্যালয়গুলির কাছ থেকে তাদের বক্তব্য জানিয়ে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ।
আগামী ১ অক্টোবর মামলার পরবর্তী শুনানি।