Date : 2021-09-20

বিশ্বভারতী উপাচার্যের নিরাপত্তা তুলে নেবার নির্দেশ বিচারপতির

স্নেহাশীষ চট্টোপাধ্যায় রিপোর্টার : বিশ্বভারতীতে শান্তি বজায় রাখুন আর্জি আদালতের। কাল থেকে উপাচার্যের নিরাপত্তা তুলে নেবার নির্দেশ বিচারপতি রাজা শেখর মান্থা। তিন জন ছাত্রের ক্লাস করতে না দেওয়ার বিষয়ে বিশ্বভারতীর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা খারিজ করে দেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। আদালতকে তারা জানান, নির্দিষ্ট সময় ও প্রক্রিয়া মেনেই ওই ছাত্রদের আবারও ক্লাস করতে পারবে। এ ছাড়া যে সব অধ্যাপকদের সাসপেন্ড করা হয়েছে বা ছাঁটাই করা হয়েছে তাঁদের বিষয়টিও পুনরায় বিবেচনা করবে কর্তৃপক্ষ।

বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র আন্দোলনের যারা সমর্থন করেছিলেন সেই সমস্ত বহিস্কৃত অধ্যাপকের হয়ে আইনজীবী অরুণাভ ঘোষ আদালতে জানিয়েছেন বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমান উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী এই মানসিকতার উপাচার্য এর আগে বিশ্বভারতী কোনদিন পাইনি বিশ্বভারতীর নিজস্ব গরিমা অক্ষুন্ন রাখার কোনো চেষ্টাই নেই বর্তমান উপাচার্যের কেন এই উপাচার্যকে পুলিশি নিরাপত্তা দেয়া হচ্ছে তিনি যথেষ্ট পরিচিত তাহলে কেন তার পুলিশি নিরাপত্তায় প্রয়োজন রয়েছে অবিলম্বে তার নিরাপত্তা তুলে দেওয়া হোক এবং যে সমস্ত অধ্যাপকদের বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ বহিষ্কার করেছে এবং যাদের মাসিক বেতন বন্ধ করেছে তা অবিলম্বে চালু করা হোক। বিচারপতির মন্তব্য, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের এই আন্দোলনে ইন্ধন দিচ্ছেন বেশ কিছু বহিরাগত।
ছাত্রদের বুঝতে হবে যে এই রাজনীতির কারবারিরা নিজেদের স্বার্থে তাদের ব্যবহার করে ছুঁড়ে ফেলে দেবে। তাই এসব করার আগে যে কাজের জন্য তাঁরা বিশ্বভারতীতে আছেন অর্থাৎ পঠন-পাঠন তার ওপরই জোর দেওয়া উচিত। এটা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যের যে এই ধরনের একটা বিশ্বমানের বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্যকে ক্রমাগত নিচের দিকে টেনে নামানোর চেষ্টা হচ্ছে। এতে কোনও পক্ষই তার দায় অস্বীকার করতে পারে না।

উপাচার্য এবং প্রশাসনিক কর্তাদের আরও অনেক নমনীয়তার সঙ্গে অভিযোগের নিষ্পত্তি করতে হবে, পর্যবেক্ষণ বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার।