Date : 2021-11-27

দুটো টিকার পরেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। উদ্বিগ্ন নবান্ন আপাত কঠোর হ‌ওয়ার নির্দেশ পাঠালো জেলাগুলোকে।

সঞ্জু সুর, রিপোর্টার : উদ্বেগজনকভাবে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। উদ্বেগ বাড়ছে রাজ্য সরকারের। তাই পাঁচ দিনের মধ্যে দু’বার করোনা নিয়ে বৈঠক করতে হলো রাজ্য সরকারকে। পুজো মেটার পর এখনো সরকারি অফিসে কাজকর্ম নিজ গতিতে শুরু হয়নি। কিন্তু এর মধ্যেই করোনা সংক্রমণের উর্ধ্বগতি যথেষ্ট চিন্তায় ফেলেছে রাজ্য সরকারকে। তাই ১৯ অক্টোবরের পর শনিবার (২৩ অক্টোবর) আবার বৈঠক সারলেন মুখ্যসচিব। শনিবারের এই ভার্চুয়াল বৈঠকে নবান্ন থেকে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যসচিব ছাড়াও স্বরাষ্ট্র সচিব, স্বাস্থ্য সচিব, ডিজি সহ প্রতিটা জেলার জেলাশাসক, জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিক, পুলিশ সুপার।

সূত্রের খবর, বৈঠকে মুখ্যসচিব উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, যেভাবে কোভিডের দুটো টিকা নেওয়ার পরেও নতুন করে কোভিড আক্রান্ত হ‌ওয়ার খবর আসছে তা যথেষ্ট চিন্তার। এখন‌ই এই বিষয়ে রাশ টানতে হবে। বিশেষ করে কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, উত্তর দিনাজপুর, দার্জিলিং প্রভৃতি জেলাগুলোতে সংক্রমণের হার বাড়ছে। হার বাড়ছে মালদহ, নদীয়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাগুলোতেও। ফলে আবারও কনটেইনমেন্ট জোনে ফিরতে চলেছে রাজ্য। নবান্ন সূত্রে খবর, করোনা সংক্রমণের হার রুখতে এলাকাভিত্তিক কনটেইমেন্ট জোন বা প্রয়োজনে মাইক্রো কনটেইনমেন্ট জোন পুনরায় চালু করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। টেস্টিং, ট্র্যাকিং ও ট্রিটমেন্টের দিকে বিশেষ নজর দেওয়ার নির্দেশ ও দেওয়া হয়েছে বলে খবর। পুলিশ প্রশাসন কে বলা হয়েছে কঠোরভাবে নাইট কারফিউ পালনের পাশাপাশি মাস্কের ব্যবহারের বিষয়েও প্রয়োজনে কঠোর হতে হবে। আরো বলা হয়েছে হাসপাতালগুলিতে কোভিড ফেসিলিটির পুনর্মূল্যায়ন করে নতুন ও ক্রিটিক্যাল রোগীদের জন্য ব্যবস্থা তৈরি রাখতে হবে। এছাড়া টিকা করণের হার বাড়ানোর বিষয়েও নজর দিতে বলেছেন মুখ্যসচিব।