Date : 2021-11-27

দেশের করোনা গ্রাফ উর্ধমুখী হলেও রাজ্যের গ্রাফে খানিকটা স্বস্থি দিয়েছে রাজ্যবাসীকে

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, রিপোর্টার : দেশে নতুন করে চোখ রাঙাচ্ছে নভেল করোনা ভাইরাস।উৎসবের মরশুমেই হুড়মুড়িয়ে বেড়েই চলছিলো দৈনিক সংক্রমণ।যা নিয়ে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে চিন্তা বাড়াচ্ছিলো প্রশাসনের। বৃহস্পতিবার রাজ্যের স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে ২৩২ জন কলকাতার । দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে ফের প্রথমে। তবে আগের দিনের তুলনায় সামান্য হলেও কমেছে সংক্রমণ। দ্বিতীয় স্থানে উত্তর ২৪ পরগনা । একদিনে আক্রান্ত ১৪৩ জন। আগের দিন সংক্রমণ ছিল এর তুলনায় সামান্য কম।

দৈনিক সংক্রমণে ফের তৃতীয় স্থানে হুগলি। একদিনে সেখানে ৮২ জনের শরীরে থাবা বসিয়েছে মারণ ভাইরাস। চতুর্থ স্থানে দক্ষিণ ২৪ পরগনা। সেখানে একদিনে সংক্রমিত হয়েছেন ৬৯ জন। এছাড়াও গত ২৪ ঘণ্টায় কম বেশি রাজ্যের বাকি সব জেলা থেকেই নতুন আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। একদিনে পজিটিভিটি রেট ২. ৫২ শতাংশ। ফলে রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৫,৮৩, ৬৪৬।একদিনে করোনা প্রাণ কেড়েছে রাজ্যের ১৪ জনের। দৈনিক মৃত্যুর নিরিখে প্রথম স্থানে উত্তর ২৪ পরগনা। একদিনে করোনার বলি সেখানকার ৭ জন। স্বাভাবিকভাবেই তা চিন্তা বাড়িয়েছে ওই জেলার বাসিন্দাদের। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯, ০২১ জন। একদিনে করোনাকে পরাস্ত করে ঘরে ফিরেছেন ৭৭৫ জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা ১৫,৫৭, ০৯০। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৯৮.৩২ শতাংশ। বর্তমানে রাজ্যে সেফ হোমের সংখ্যা ২০০।

আক্রান্তের পরিসংখ্যান স্বস্তি দিলেও উদ্বেগ রয়েছে মৃত্যুর সংখ্যায়।কারণ গত তিন দিনে রাজ্যের মৃত্যুর সংখ্যা এক অঙ্কের থাকলেও বৃহস্পতিবার কিন্ত দুই অঙ্কে পৌঁছে গিয়েছে।