Date : 2021-10-22

Calcutta High Court : হাইকোর্টের নির্দেশে স্বস্তি পরীক্ষার্থীদের

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, রিপোর্টার : স্কুলের ফি না মেটালেও পরীক্ষায় বসতে দিতে হবে শুক্রবার এমনটাই নির্দেশ দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি ইন্দ্র প্রসন্ন মুখোপাধ্যায় ও বিচারপতি মৌসুমী ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ ।বেসরকারি স্কুলের শিক্ষার্থীদের বিতর্ক সমস্যা কিছুতেই মিটছে না। তবে এই বিতর্কে যে পর্যায়ে থাকুক না কেন কোনো শিক্ষার্থীকে এই কারণ দেখিয়ে বোর্ড বার্ষিক অথবা অন্তর্বর্তী পরীক্ষায় বসার সুযোগ থেকে বঞ্চিত করতে পারবেন না স্কুল কর্তৃপক্ষ।অন্যদিকে বেতন বিতর্ক ও বিতর্কহীন অংশ আগামী ২৫ শে অক্টোবরের মধ্যে জমা দিতে হবে শিক্ষার্থীদের।

গত বছর পুজোর আগে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ দিয়েছিল তাকে সামনে রেখেই করোনা কারণে যে সমস্ত পরিষেবা শিক্ষার্থীরা পাইনি তার জন্য স্কুলগুলি ফি আদায় করতে চাইছে বলে যেমন অভিযোগ অন্যদিকে অভিভাবকদের একাংশ এই সুযোগ নিয়ে স্কুলে ফি জমা দিচ্ছেন না বলে পাল্টা অভিযোগ রয়েছে।

বেসরকারি স্কুলের বেতন নিয়ে যতই বিতর্ক থাকুক কোন পড়ুয়াকে স্কুল থেকে বিতাড়িত করা যাবে না। একইসঙ্গে পরীক্ষায় বসার সুযোগ দিতে হবে প্রতিটি ছাত্রছাত্রীকে, শুক্রবার স্কুল ফি মামলায় স্পষ্টভাবে এই নির্দেশ জানিয়ে দিল কলকাতা হাইকোর্ট। বিচারপতি ইন্দ্র প্রসন্ন মুখোপাধ্যায় ও বিচারপতি মৌসুমী ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে এ দিন একদিকে স্কুল, অন্যদিকে অভিভাবকরা অভিযোগ জানান।

এবার হাইকোর্ট দুটি ভাগে বকেয়া বেতন মিটিয়ে দেওয়ার সুযোগের ব্যবস্থা করল অভিভাবকদের জন্য আদালতের নির্দেশ,২৫শে অক্টোবরের মধ্যে একদিকে বকেয়া বেতন, অন্যদিকে যে বকেয়া নিয়ে বিতর্ক রয়েছে, সেই অংকের টাকাও স্কুলকে মেটাতে হবে। স্কুল ওই টাকা পৃথকভাবে জমা রাখবে মামলার নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত। ২৫ অক্টোবরের পর স্কুলগুলি পৃথকভাবে কত টাকা কোন পড়ুয়ার থেকে পাওয়া গেল, এ ব্যাপারে তালিকা তৈরি করবে। আগামী ৩রা ডিসেম্বর পরবর্তী শুনানিতে সেই তালিকা আদালতকে জমা দিতে হবে।