Date : 2021-11-27

জম্মু কাশ্মীরে জঙ্গি সন্দেহে গুলি, প্রাণ গেল এক নিরীহ আপেল ব্যবসায়ীর

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক : কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাশ্মীর সফরের মধ্যেই উত্তপ্ত ভূস্বর্গ। নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে বৈঠকে জঙ্গি আক্রমণের বিষয়ে সেনাকে আরও কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশও দিয়েছেন তিনি। রবিবার সেনা-জঙ্গি লড়াইয়ে ইতিমধ্যে জখম হয়েছেন ২ পুলিশ কর্মী ও ১ জওয়ান। সিআরপিএফের গাড়িতেও হামলা চালানো হয়েছে। সেখানে জঙ্গিদের গুলিতে এক সাধারণ নাগরিকের মৃত্যুও হয়েছে বলে খবর। পুঞ্চে গত ১৪ দিন ধরে সেনা-জঙ্গির গুলির লড়াই চলছে। রবিবার সকালে ধৃত লস্কর জঙ্গি জিয়া মুস্তাফাকে নিয়ে ভাটা দুরিয়ান এলাকায় অপারেশন চালায় সেনা ও পুলিশের যৌথবাহিনী। এলাকায় পৌঁছতেই গুলিবৃষ্টি শুরু করে জঙ্গিরা। এলাকা ঘিরে ফেলে পালটা গুলি ছোড়ে বাহিনী। জঙ্গিদের ছোড়া গুলিতে জখম ২ পুলিশকর্মী ও ১ সেনা জওয়ান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এদিকে জম্মু-কাশ্মীরের সোপিয়ান জেলার জৈনপোড়া গ্রামে মৃত্যু হল এক আপেল ব্যবসায়ীর। দফায় দফায় পুলিশ, নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে জঙ্গিদের সংঘর্ষ চলে। পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয় শাহিদ আজাজের। আপেলের গাড়িতেই পড়ে ব্যবসায়ীর নিথর দেহটি। যদিও পরে পুলিশের তরফে জানানো হয়, দুই দেশের গুলি বিনিময়ের সময় বছর ২০-র আজাজের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশের তরফে টুইট করে জানানো হয়, সকাল সাড়ে ১০টার সময় খবর পাওয়া যায়, সোপিয়ানের বাবাপোড়ায় ১৭৮ নম্বর ব্যাটেলিয়ন নাকা পার্টির উপরে হামলা চালায় কিছু অজ্ঞাত পরিচয় জঙ্গি। দুই দেশের মধ্যে গুলি বিনিময় চলাকালীনই গুলিতে মৃত্যু হয় এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির।

সিআরপিএফের দাবি, একজন তাঁদের আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে পালাতে গিয়েছিল, তখনই শুন্যে গুলি ছোড়া হয়।  অন্যদিকে  স্থানীয়দের দাবি, গোলাগুলি চলাকালীন নিরাপত্তারক্ষীদের ক্যাম্পে আশ্রয় নেন ওই ব্যবসায়ী। তখনই সেনাকর্মীদের সঙ্গে তাঁর বচসা হয়। পরে সিআরপিএফ শুন্যে গুলি ছুড়লে মৃত্যু হয় তাঁর।

 চলতি মাসে নিরাপত্তারক্ষীদের ক্যাম্পের কাছে এমন ঘটনা দ্বিতীয়বার ঘটল। মাত্র দু সপ্তাহ আগে অনন্তনাগে শুন্যে গুলি চালায় সিআরপিএফ। তাতে মৃত্যু হয় পারভেজ আহমেদ নামে এক স্থানীয় বাসিন্দার। জঙ্গিদের নিশানা করে গুলি চালালেও, স্থানীয়দের নিরাপত্তা নিয়ে বড় প্রশ্ন উঠে গিয়েছে ইতিমধ্যে।