Date : 2021-11-27

ব্যারিকেডে আটকাল ‘অনড়’ বিজেপির মিছিল – পুলিশের সঙ্গে ধ্বস্তাধস্তি দিলীপদের

কোভিড বিধির কারণ দেখিয়ে অনুমতি দেয়নি পুলিশ প্রশাসন। তবে পুলিশের অনুমতি ছাড়াই পেট্রোপণ্য থেকে ভ্যাট ছাড়ের দাবি নিয়ে মিছিল করার বিষয়ে অনড় মনোভাব দেখিয়েছিল বিজেপি। কিন্তু পুলিশ কোনও ভাবেই তা মেনে নেয়নি। সকাল থেকেই মুরলীধর সেন লেনের সামনের রাস্তায় যেরকম ভাবে পুলিশের ব্যারিকেড ছিল তাতে একথা স্পষ্টই ছিল যে কোনমতেই রাস্তা পেরোতে পারবে না বিজেপি আর ঠিক তাইই হল। ব্যারিকেড ভেঙে এগোতে গিয়ে পুলিশের সাথে ধ্বস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়লেন বিজেপি নেতারা।

আজ বিজেপির তরফে উপস্থিত ছিলেন দিলীপ ঘোষ, জয়প্রকাশ মজুমদার, জিতেন্দ্র তিওয়ারি, রাহুল সিনহা, শুভেন্দু অধিকারী, রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়, সুকান্ত মজুমদার, অগ্নিমিত্রা পাল সহ একাধিক বিজেপি নেতা নেত্রী। সমর্থকদের ভিড়ও ছিল চোখে পড়ার মত। কিন্তু যেহেতু পুলিশের অনুমতি মেলেনি তাই রাজ্য সদর দফতরের সামনেই বক্তব্য রাখেন তারা। পেট্রোপণ্যের ভ্যাটে ছাড় না দেবার জন্য কটাক্ষ করেন রাজ্য সরকারকে।

আজ যাই হয়ে যাক না কেন মিছিল হবে বলে হুঙ্কার দিয়েছিলেন রাজ্য বিজেপি নেতারা। দলীয় কার্যালয়ের সামনে জমায়েতে রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেন, ‘‘এই বাধা বুঝিয়ে দিল বিজেপিকে ভয় পাচ্ছে রাজ্য সরকার। এটাই আমাদের জয়। তবে বিজেপি-কে না আটকে রাজ্য বরং পেট্রল, ডিজেলের উপর থেকে রাজ্যের চাপানো ভ্যাট কমাক। তাতে সাধারণ মানুষের উপকার হবে।’’

সকলের বক্তব্যের শেষে নেতারা ব্যারিকেড ভেঙে এগোনোর চেষ্টা করেন কিন্তু পুলিশ তাদের আটকে দেয়, চলে ব্যাপক ধ্বস্তাধস্তি। তারপর পোড়ানো হয় মুখ্যমন্ত্রীর কুশপুত্তলিকা। তবে
খানিক উত্তেজনা ছড়ালেও পেট্রোপণ্য থেকে রাজ্য সরকারের ভ্যাট কমানোর দাবিতে ঘোষিত মিছিল করতে পারল না বিজেপি। আগামীকাল রাজ্যের সমস্ত পেট্রলপাম্পের সামনে ১১ টা থেকে ১২ টা ১ ঘন্টা প্রচার কর্মসূচী করবে বিজেপি।