Date : 2022-01-29

আফগানিস্তানে ত্রাণে সায় রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের

রিমা দত্ত, নিউজ ডেস্ক : তালিবানের উপর নিষেধাজ্ঞা রেখেই আফগানিস্তানের বাসিন্দাদের কাছে ত্রাণ পৌঁছাতে উদ্যোগী হল রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ। এই ত্রাণে সম্মতি দিয়েছে ভারতও। তালিবানও এই প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়ে বলেছে, নিষেধাজ্ঞা দ্রুত তোলা হবে বলে তারা আশাবাদী।

তালিবানেরা কাবুল দখলের পরই তীব্র হয়েছে আফগানিস্তানের আর্থিকসঙ্কট। ইতিমধ্যেই সাহায্য বন্ধ করে দিয়েছে বিশ্ব ব্যাঙ্ক। আমেরিকা সে দেশে গচ্ছিত আফগান সেন্ট্রাল ব্যাঙ্কের সাড়ে ন’শো কোটি ডলার আটকে দিয়েছে। পড়েছে আফগানি মুদ্রার দাম। আফগানিস্তানের জিডিপি-র ৪০ শতাংশ এবং বাজেটের প্রায় ৮০ শতাংশ বিদেশি সাহায্যের উপরে নির্ভরশীল। অথচ শীতের মুখে সরকারি কর্মীদের বেতন দেওয়ার মতো অর্থও তালিবান সরকারের নেই। এই পরিস্থিতিতে মানবিক সঙ্কট এড়াতে সাধারণ আফগানদের জন্য ত্রাণ পৌঁছনোর প্রস্তাবটি নিরাপত্তা পরিষদে আনে আমেরিকা। সেখানে বলা হয়, আগামী এক বছর ধরে আফগানিস্তানে ত্রাণ পৌঁছবে। ত্রাণের এই তহবিল যাতে তালিবানদের হাতে না পড়ে এই প্রস্তাবে সেইটিও উল্লেখ করা হয়েছে। রাষ্ট্রপুঞ্জের মানবিক সাহায্য বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি মার্টিন গ্রিফিথস জানান, এই প্রস্তাবের ফলে ১৬০টিরও বেশি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা আফগানদের জন্য খাদ্য ও স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সহায়তা পৌঁছে দিতে পারবে। ত্রাণ ঠিক জায়গায় পৌঁছচ্ছে কি না, তা পর্যালোচনা করে ছ’মাস অন্তর রিপোর্ট দেওয়া হবে।

এবিষয়ে, রাষ্ট্রপুঞ্জে ভারতের দূত টি এস তিরুমূর্তি বলেছেন, ‘‘জাতি, ধর্ম বা রাজনৈতিক মতাদর্শের ভিত্তিতে কোনও বৈষম্য ছাড়াই ওই সাহায্য অবাধে সবার কাছে পৌঁছনো প্রয়োজন। এই তহবিলের অন্যত্র ব্যবহার বা অপব্যবহার যাতে না হয়, নিরাপত্তা পরিষদ যেন তা নজরে রাখে।’’ এছাড়াও আফগানিস্তানের বিপন্ন মানুষদের যে সাহায্য দরকার সেইটাও জানিয়েছে তাঁরা।