Date : 2022-11-29

সংক্রমণ ১ সপ্তাহে বেড়েছে ১১ শতাংশ! ওমিক্রনের নিয়ে চিন্তায় ‘হু’

রিমা দত্ত, নিউজ ডেস্ক : বছর শেষেও স্বস্তি নেই। বিশ্বজুড়ে বাড়ছে বাড়ছে ওমিক্রনের সংক্রমণ। গত এক সপ্তাহে, করোনার এই নয়া ভ্যারিয়েন্টের দাপটে গত এক সপ্তাহ ধরে আক্রান্তের সংখ্যাও এক ধাক্কায় ১১ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে, এমনটাই জানানো হল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু।মঙ্গলবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে জানানো হয়, বিশ্বের একাধিক দেশে হঠাৎ করে যে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে, তার পিছনে দায়ী ওমিক্রন। যে দেশগুলিতে ইতিমধ্যেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের দাপট দেখা গিয়েছিল, সেখানেও নতুন করে ওমিক্রনের দাপট দেখা দিচ্ছে। ‘উদ্বেগের কারণ’ হিসাবে চিহ্নিত ওমিক্রন থেকে সামগ্রিকভাবে সংক্রমণের ঝুঁকি এখনও অনেক বেশি।

হু-এর তরফে বলা হয়েছে, “ক্রমাগত যে প্রমাণগুলি পাওয়া যাচ্ছে, তাতে দেখা যাচ্ছে ডেল্টা-র তুলনায় ওমিক্রনের ক্ষেত্রে দু-তিনদিনের মধ্যেই সংক্রমণ দ্বিগুণ আকারে বৃদ্ধি হচ্ছে। একাধিক দেশে করোনা সংক্রমণও দ্রুতগতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে। ব্রিটেন ও আমেরিকাতে ইতিমধ্যেই ওমিক্রন ডমিনেন্ট ভ্যারিয়েন্ট হিসাবে রূপান্তরিত হয়েছে।” বর্তমানে বেশকিছু দেশে ওমিক্রনের প্রভাব পড়েছে। ব্রিটেন, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ডেনমার্কেই মাথাপিছু সংক্রমণের হার সবথেকে বেশি। ডেল্টার তুলনায় ওমিক্রনে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সম্ভাবনা তুলনামূলকভাবে অনেক কম। তবে ওমিক্রন সংক্রমণ কতটা গুরুতর আকার ধারণ করতে পারে এবং অক্সিজেন, ভেন্টিলেটরের ব্যবহার সহ চিকিৎসা ক্ষেত্রেই বা কতটা প্রভাব পড়তে পারে কিংবা মৃত্যু হার কত, তা জানতে আরও কিছু সময় লাগবে বলেই জানিয়েছেন বিজ্ঞানী-গবেষকরা।

ওমিক্রনের দাপটে বিগত এক সপ্তাহেই সংক্রমণের হার ১১ শতাংশ বৃদ্ধি পেলেও স্বস্তি জুগিয়ে মৃত্যুর হার গত সপ্তাহের তুলনায় ৪ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। বিগত এক সপ্তাহেই বিশ্বে নতুন করে ৫০ লক্ষ মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৪৪ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে সংক্রমণের কারণে।