Date : 2022-01-29

চতুর্থ ঢেউ নিয়ে দেশবাসীকে সতর্ক কেন্দ্রের..

ওয়েব ডেস্কঃ ২৫ ডিসেম্বর ১ জানুয়ারি সব মিলিয়ে গোটা বিশ্বের মানুষ উত্্সবের মেজাজে। এই পরিস্থিতিতে মাস্ক মুখ থেকে নামালেই

পরিণতি ভয়ঙ্কর হতে পারে। গোটা বিশ্ব বর্তমানে করোনার চতুর্থ ঢেউয়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে।বড়দিন ও বর্ষবরণের উত্্সবে

যাতে করোনা বিধিতে কোন খামতি না পড়ে তা নিয়ে দেশবাসীকে সতর্ক করল কেন্দ্র।শক্রবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ

ভূষণ দেশের সাধারণ নাগরিকদের ভিড় ও অপ্রয়োজনীয় ভ্রমন এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছেন।পাশাপাশি তিনি সমস্ত কোভিড

আচরণবিধি মেনে চলতে পরামর্শ দিয়েছেন। জোর দিয়েছেন দ্রুত টিকাকরণের উপরেও।


কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে শুক্রবার জানানো হয়, ওমিক্রনে এখনও পর্যন্ত আক্রান্ত ৩৫৮ জন। তবে এখন পর্যন্ত দেশে

ওমিক্রনে কারও মৃত্যু হয়নি। ১১৪ জন এখনও অবধি ওমিক্রনকে জয় করেছে। ১৭ টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল থেকে

এখনও পর্যন্ত ওমিক্রন আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। এই তালিকায় শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এ রাজ্যে ওমিক্রন আক্রান্ত হয়েছে

88 জন। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে দিল্লি, সেখানে আক্রান্ত হয়েছে 67 জন।
দেশের মোট প্রাপ্তবয়স্ক জনসংখ্যার ৮৯ শতাংশ করোনা টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন এবং প্রায় ৬১ শতাংশ মানুষ কোভিড

টিকার দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, ভারতে এখনও পর্যন্ত প্রধান স্ট্রেন হল ডেল্টা।

শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠকে জানানো হয়, করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট এবং অন্যান্য ভ্যারিয়েন্ট গুলির ক্ষেত্রে যে চিকিত্্সা

প্রোটোকল মেনে চলা হচ্ছে, ওমিক্রনের ক্ষেত্রেও তা প্রযোজ্য।
ওমিক্রন সংক্রমণ বাড়তেই বিশ্বের একাধিক দেশ বুস্টার ডোজের পথে হাটছে। ভারতেও বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে কিনা তা

নিয়ে সরকার আলোচনা করছে।