Date : 2022-06-29

মাস্ক বিক্রেতাদের পৌষমাস

শাহিনা ইয়াসমিন, রিপোর্টার : ফিরে এসেছে সেই সময়। মাঝখানে কিছুটা স্লথ হলেও ফের মাস্ক বিকিকিনির হিড়িক বেড়েছে। নতুন করোনা বিধি চালুর সঙ্গে সঙ্গে দেদার মাস্ক বিক্রি হচ্ছে। মাস্কের দামও বেড়েছে। হরেক রকমের মাস্কের পসরা সাজিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। বাজারে কোন মাস্কের চাহিদা বেশি, তা জানালেন ব্যবসায়ীরা।

করোনা সংক্রমণকে ঠেকাতে মাস্ক, স্যানিটাইজার ও দূরত্ব বিধি মেনে চলা এখন বাঞ্চনীয়। বার বার সেই সতর্কবার্তাই দিচ্ছেন চিকিতসকেরা। তবে সে সতর্কবার্তার ছবি কোথাও কোথাও দেখা মিলছে আবার কোথাও নয়। ২০২০ ও ২০২১-র শুরুর দিকে যেভাবে মাস্ক ও স্যানিটাইজারের বিক্রি বেড়েছিল, সে তুলনায় ২০২১-এর শেষে করোনা ভীতি চলে যাওয়ায় মাস্ক ও স্যানিটাইজারের বিক্রিও কমে গিয়েছিল। তবে ২০২২ এর ৩রা জানুয়ারি থেকে নতুন বিধি চালু হওয়ায় ফের মাস্ক ও স্যানিটাইজারের বিক্রি বেড়েছে। বিক্রির পাশাপাশি মাস্কের দামও বেড়েছে। ২০ থেকে ৩০ টাকা দাম বেড়েছে মাস্কের। অন্যান্য মাস্কের তুলনায় ডিসপোজেবল মাস্কের চাহিদা বেশি। তবে দামও আকাশ ছোঁয়া। এমনটাই বক্তব্য ব্যবসায়ীদের।
বাজারে বিভিন্ন ধরনের মাস্ক এসেছে। দশ শতাংশ মাস্কের বিক্রি বেড়েছে বলে জানাচ্ছেন বিক্রেতাদের একাংশ। ম্যাচিং করেও মানুষ মাস্ক পড়ছে। তবে কোন মাস্ক কতটা সুরক্ষিত তা নিয়ে রয়েছে প্রশ্ন। ইউজ অ্যান্ড থ্রো অর্থাত ডিসপোজেবল মাস্কের দিকে বেশি ধুঁকছে আমজনতা, এমনটাই মত ব্যবসায়ীদের।