Date : 2022-10-06

নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু সমস্ত প্রজন্মের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবেন, তাঁর জন্মবার্ষিকী সাড়ম্বরে পালিত হলো ৬৪নম্বর ওয়ার্ডেও।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, রিপোর্টার : তিনি ছিলেন, তিনি আছেন এবং থাকবেন প্রতিটি ভারতবাসীর মননে চিন্তনে দেশ নায়ক নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু। তিনি বলেছিলেন”আমি আজ একটা খুব বড়ো দুঃখের কথা বলবার জন‌্য কলম ধরেছি। এ দুঃখটা হয়তো অনেকের কাছে কাল্পনিক– কিন্তু আমার ক্ষুদ্র প্রাণের পক্ষে এ দুঃখটা সত‌্য ও গভীর”।আজ বাংলা বঞ্চিত।প্রজাতন্ত্র দিবসে বাংলার নেতাজির ট্যাবলো চলবে না দিল্লির রাজপথে।বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শত চেষ্টা করেও কেন্দ্রের বরফ গলাতে পারেনি কারণে তীব্র রাজনীতি চলছে নেতাজিকে নিয়ে।যে বাংলা থেকে পরাধীন ভারত বর্ষকে স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখিয়ে ছিলেন।ব্রিটিশ সরকারের বিরুদ্ধে যিনি আজাদ হিন্দ বাহিনী গঠন করে ছিলেন।আজ তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়েছেন বলে মনে করছেন বিশিষ্টজনেরা।
নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু একজন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক নায়ক ।বাংলা থেকে নেতাজি উত্থান ভারতীয় ইতিহাসে অতুলনীয়।তিনি দেশপ্রেম, সাহসিকতা,নেতৃত্বে,ঐক্য ও সৌভাতৃত্বের প্রতীক।নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু সমস্ত প্রজন্মের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবেন।রবিবার দেশ জুড়ে পালিত হচ্ছে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকী।দেশ তথা রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে সাড়ম্বরে পালিত হচ্ছে।
কলকাতা পুরসভার ৬৪ নম্বর ওয়ার্ডের পক্ষ থেকে পালিত হয় নেতাজির জন্ম বার্ষিকী।রবিবাসরীয় সকালে ছুটির মেজাজেই দেশের বীর পুত্রের জন্মদিন পালন করা র পাশাপাশি এলাকায় দুঃস্থ মানুষকে ৫০০ কম্বল বিতরণ করেন এলাকার পৌর মাতা শাম্মি জাহান।করোনা অতিমারীতে আগত সকলেই এদিন।মাস্ক পরে তাঁরা অংশগ্রহণ করেন।পৌরমাতা শাম্মি জানান বলেন দেশে বহু নেতা আছেন কিন্তু নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু একজনই।বাংলার ট্যাবলো প্রসঙ্গে তিনি বলেন প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লির রাজপথে এবার বাংলার ট্যাবলো বাতিল করে শুধু যে বাংলা নয় অপমান করা হয়েছে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু কে।
দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আম্বানি ও আদানির মত মানুষের খেরাটোপে থাকেন।বিদেশ গাড়ি, বিদেশ জুতো ব্যবহার করেন তাঁরা নেতাজি কে কিবা সন্মান দেবেন।ভারতীয় জনতা পার্টি ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করেন আর দেশনায়ক সুভাষ চন্দ্র বসু একটাই কথা বলতেন আমরা ভারতবাসী।যেখানে ধর্মের কোন ভেদাভেদ নেই।কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার মানুষের ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করেন।

পুরসভার ৬৪ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন পৌরমাতা ফারজানা চৌধুরী ছাড়াও এলাকায় বিশিষ্ট জনের উপস্থিতিতে এদিন পালিতহয় নেতাজি জন্ম বার্ষিকী।
নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু একজন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক নায়ক। বাংলা থেকে নেতাজি উত্থান ভারতীয় ইতিহাসে অতুলনীয়।তিনি দেশপ্রেম, সাহসিকতা,নেতৃত্বে,ঐক্য ও সৌভাতৃত্বের প্রতীক।নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু সমস্ত প্রজন্মের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবেন।রবিবার দেশ জুড়ে পালিত হচ্ছে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকী।দেশ তথা রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে সাড়ম্বরে পালিত হচ্ছে তাঁর জন্মদিন।