Date : 2022-05-25

7 ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে পাড়ায় শিক্ষালয় প্রাক-প্রাথমিক থেকে পঞ্চম শ্রেণীর নিয়েই শুরু হবে পঠন-পাঠন

নাজিয়া রহমান, রিপোর্টার : ৭ই ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হতে চলেছে “পাড়ায় শিক্ষালয়”। সোমবার এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। এই কর্মসূচির মাধ্যমে খোলামেলা পরিবেশের মধ্যে পড়ুয়াদের কাছে স্কুলের আমেজ পৌঁছে দেওয়া হবে। প্রাক প্রাথমিক থেকে পঞ্চম শ্রেণির পড়ুয়াদের নিয়েই শুরু হবে পঠন-পাঠন। শিশুদের লেখা পড়া, নিজেদের মধ্যে মেলামেশা, সাংস্কৃতিক অভিব্যক্তি, এবং শরীর চর্চার সুযোগ করে দেবার জন্য মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে নেওয়া হয়েছে এই নয়া উদ্যোগ। অভিজ্ঞ শিক্ষক শিক্ষিকা, বিশেষজ্ঞ কমিটি, প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ, শিক্ষা ক্ষেত্রে নিয়ে কাজ করছেন এমন সংগঠন, অভিজ্ঞ চিকিৎসক সকলের সঙ্গে আলোচনা করেই এই উদ্যোগের রূপরেখা গঠন করা হয়েছে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী। কোভিড বিধি মেনে পাড়ার কোন খোলা জায়গায় উন্মুক্ত পরিবেশে যেখানে কোভিডে সংক্রমণের সম্ভাবনা কম সেইস্থানকেই বেছে নেওয়া হবে পঠন-পাঠনের জন্য। ৫০,১৫৯ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ১৫,৫৯৯ শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের ১.৮৪ লক্ষ প্রাথমিক শিক্ষক শিক্ষিকা, ২১ হাজার প্যারা টিচার, ৩৮হাজার সহায়িকা / সহায়ক, সরকারি এবং সরকার পোষিত বিদ্যালয় ও শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের ৬০,৫২,৬৮২ জন ছাত্র-ছাত্রী এই উদ্যোগে সামিল হবে। স্কুলের দিনগুলিতে যে সময়ে স্কুল চলে ঠিক সেই সময়ই এই অধিবেশনগুলি সংগঠিত হবে বলেই জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। বর্তমান সময়ে “পাড়ায় শিক্ষালয়’ এই উদ্যোগটি যথেষ্ট সময় উপযোগী বলেই মত শিক্ষামন্ত্রী।

বর্তমানে অনেকটাই কমেছে করোনা সংক্রমন।ফলে কিছু ক্ষেত্রে শিথিল করা হয়েছে বিধি নিষেধ। তবে এখনো বন্ধ স্কুল। পড়ুয়া, অভিভাবক শিক্ষক সংগঠন ও ছাত্র সংগঠন গুলির তরফ থেকে স্কুল খোলার দাবি জানানো হচ্ছে। রাজ্য স্কুল খোলার পক্ষে। তবে ভাবনা চিন্তা করেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে বলে সোমবার জানান শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। স্কুল খোলার বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানাবেন বলে এদিন জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।