Date : 2022-05-29

খুলতে হবে স্কুল, নইলে আইন অমান্যের হুঁশিয়ারি এসএফআইয়ের

নাজিয়া রহমান, রিপোর্টার : পানশালা খোলা, পাঠশালা বন্ধ। এই শ্লোগানে বেশ কিছুদিন ধরে সরগরম সোস্যাল মিডিয়া । বামপন্থী ছাত্র যুব সংগঠনগুলিও রাজ্য সরকারের সমালোচনায় মুখর। এবার সিপিএমের ছাত্র সংগঠন এসএফআই সরাসরি ময়দানে নামার হুঁশিয়ারি দিল।গত দেড় বছর ধরে এস এফ আই এর নেতৃত্বে রাজ্য জুড়ে ছাত্র আন্দোলনের ফলে রাজ্য সরকার গত ১৬ই নভেম্বর থেকে ধাপে ধাপে স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পঠন-পাঠন স্বাভাবিক করার প্রক্রিয়া শুরু করতে বাধ্য হয়েছিল বলে দাবি এসএফআইয়ের। তবে অপরিকল্পিত লকডাউনে অন্য সমস্ত পরিষেবা বা ক্ষেত্র আংশিক ভাবে খোলা রাখলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে আবার সব বন্ধ করে দেওয়ার পথেই হাঁটে রাজ্য সরকার, এমনই অভিযোগ তুলেছে এসএফআইয়ের সদস্যরা।

এখন করোনার তৃতীয় ঢেউ এর সংক্রমণ খানিকটা স্থিতাবস্থায়,রাজ্য জুড়ে ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবক ও নাগরিক সমাজের এক ব্যাপক অংশ স্বাভাবিক ভাবেই চাইছে ক্যাম্পাস আবার খুলুক। তাই এসএফআই-র দাবি, অবিলম্বে আংশিকভাবে হলেও স্কুল-কলেজ খুলতে হবে বিশেষজ্ঞদের সাথে কথা বলে। এবং শুধু ৯-১২ শ্রেণী নয়, সব ক্লাসের জন্যই খুলতে হবে স্কুল।

আগামী ২৩-৩০ শে জানুয়ারী এস এফ আই পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কমিটি বিশেষ সদস্যপদ অভিযানের ডাক দিয়েছে। স্বাধীনতার ৭৫ বছর মাথায় রেখে বিশেষ করে ২৩, ২৬ ও ৩০শে জানুয়ারি ধর্মনিরপেক্ষতার বার্তা সহ এই অভিযান হবে। এছাড়াও স্কুল-কলেজ বন্ধের ফলে শিক্ষার যে ক্ষতি হয়েছে, তাও তুলে ধরা হবে বলে জানিয়েছে এসএফআই-র সদস্যরা । তাদের দাবি, গ্রামবাংলায় মাত্র ১৩% ছাত্র অনলাইন ক্লাস করতে পেরেছে। তাই পাবলিক এডুকেশন সেক্টরকে বাঁচাতে অবিলম্বে শিক্ষাখাতে ব্যয়বরাদ্দ বৃদ্ধি করতে হবে সরকারকে।

আগামী ২৪শে জানুয়ারি দুপুর ২টোয় পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষাব্যবস্থার খুলে পড়া মেরুদণ্ড শিক্ষামন্ত্রীকে ফেরত দিতে বিকাশ ভবন যাবে এসএফআই প্রতিনিধিদল। সাথে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীকে উপহার দেওয়া হবে সহজপাঠ ও বর্ণপরিচয় – শনিবার এক সাংবাদিক সম্মেলন করে সে কথা জানায় এসএফআইয়ের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সুজন ভট্টাচার্য।

স্কুল-কলেজ সহ সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্বাস্থ্যবিধি মেনে আংশিক ভাবে খোলার দাবী নিয়ে এস এফ আই-এর সদস্যরা আগামী ২৭শে জানুয়ারী রাজ্য জুড়ে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটে ওপেন ক্লাসরুম সংগঠিত করবে। যদি স্কুল-কলেজ খোলা ও ড্রপ আউটদের ফেরানোর বন্দোবস্ত না হয়, তাহলে ৩১শে জানুয়ারী রাজ্য জুড়ে, ব্লক-মহকুমা-জেলাস্তরে পথ অবরোধ ও আইন অমান্য করবে বলে হুঁশিয়ারি এস এফ আই-এর।