Date : 2022-10-06

আনিস খান হত্যাকাণ্ডে সিটের উপরেই আস্থা কলকাতা হাইকোর্টের,দ্বিতীয়বার ময়না তদন্তের নির্দেশ হাই কোর্টের

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, রিপোর্টার:- শুক্রবার রাতেই ঘটনার সূত্রপাত। আনিসের বাড়িতে সেদিন রাতে গিয়েছিলেন চার জন। তাদের মধ্যে একজন পুলিশের পোশাক পরিহিত ছিল। তিনজন ছাদে উঠে যায়। ছাত্রনেতা আনিস খানকে ছাদ থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে খুন করা হয় বলে পরিবারের অভিযোগ।কলকাতা হাই কোর্ট স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করে আনিসের পরিবারের কাছে জানতে চেয়েছিলেন তাঁদের কি বক্তব্য।

বৃহস্পতিবার মামলার শুনানি চালাকালীন রাজ্যের এডভোকেট জেনারেল সৌমেন্দ্র নাথ মুখোপাধ্যায় আদালতে জানান যা ঘটেছে তা দুর্ভাগ্যজনক।তবে সরকারের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তিনি বলেন তিনজন কে সাসপেন্ড কর হয়ছে ।সেই রাতে যারা আনিসের বাড়ি গিয়েছিল।দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়ছে হয়ছে।এবং দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্ত চাইছে না পরিবার ।টি আই প্যারেডে ডাকা হয়ছে বাবা কে।
সিট কে তদন্ত করতে দেয়া হোক ।একটা রিপোর্ট দিতে দেওয়ার আবেদন জানান।

বিচারপতি রাজা শেখর মান্থা আবেদনকারীর কাছে জানতে চান আপনারা কি চাইছেন ?ফের একবার ময়নাতদন্ত করা হোক ? মোবাইল ফোন খতিয়ে দেখা হোক ? যদি মনে করে থাকেন কোনো তথ্য লোপাট হতে পারে তবে মতামত দিন কি করা যায় ?

আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য্য আমরা চাইছি কোর্ট কোনো ব্যাক্তি দিক যার নেতৃত্বে তদন্ত হবে।সেটা জেলা বিচারক বা যে কেউ হতে পারে ।
বিচারপতির ফের প্রশ্ন সেটা কি NIC হতে পারে?

সব পক্ষের বক্তব্য শোনার পর বিচারপতি রাজা শেখর মান্থা নির্দেশ দেন নতুন এস আই টি গঠন হচ্ছে ।যাঁরা আছেন তাঁদের সাথে আর সাত জন পুলিশের বিভিন্ন বিভাগ থেকে যুক্ত করা হলো।এস আই টি সঠিক তদন্ত করছেন কিনা তা আদালত নজরদারি করবেন।
এস আই টি তাঁরা যে কোন গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আদালতের পরামর্শ নিতে হবে।
ময়নাতদন্তের ক্ষেত্রে ম্যাজিস্ট্রেট নয় জেলা বিচারকের উপস্থিতি তে হবে।
মোবাইল ফোন সি এস এফ এল হায়দ্রাবাদ পাঠানোর নির্দেশ।
হায়দ্রাবাদ নিয়ে রাজ্যের মতান্তর রয়েছে।
মায়না তদন্তে ভিসেরা জেলা জজ তদারকি করবেন।
মোবাইল ফোন আনিস খানের বাবার কাছ থেকে sit আই ও নিয়ে সি এস এফ এল হায়দ্রাবাদ নিয়ে যাবেন নিজের দায়িত্বে।
ডিজিটাল তথ্য সমস্ত সি এস এফ এল কপি সুরক্ষিত রাখতে হবে।
জেলা জজ তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন কারা কারা এবং কখন ময়নাতদন্তে উপস্থিত থাকবেন।
যত দ্রুত সম্ভব ময়না তদন্তের রিপোর্ট sit হাতে তুলে দিতে হবে।
এস আই টি দু সপ্তাহের মধ্যে জমা দেবেন।
টি আই প্যারেডের জন্য জেলা জজ সিদ্ধান্ত নেবেন।
সমস্ত তথ্য মামলাকারি কে কপি দিতে হবে।জেলা জজ সময় স্থির করবেন কবে টি আই প্যারেড হবে
জেলা জজের তত্ত্বাবধানে নিহত ছাত্রনেতার দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্তের নির্দেশ আদালতের। আগামী ২ সপ্তাহের মধ্যে হাই কোর্টে এ সংক্রান্ত রিপোর্ট জমা দিতে হবে সিটকে।