Date : 2022-10-03

স্কুল খোলা সংক্রান্ত নিয়ে করা জনস্বার্থ মামলা খারিজ প্রধান বিচারপতি র ডিভিশন বেঞ্চে

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, রিপোর্টার:- মামলাকারী আইনজীবী ঋজু ঘোষালসোমবার আদালতে জানান অনেক ছাত্র আছে যারা স্কুলে যাচ্ছে। সময়ের মাপকাঠির বাইরে থাকায় ভ্যাকসিন পাচ্ছে না। তাদের কি হবে? অনেক স্কুল ১০০% উপিস্থিতি বাধ্যতামূলক করেছে ডিপি এস মেগাসিটি কলকাতা। প্রধান বিচারপতিপ্রকাশ শ্রীবাস্তব মামলাকরির কাছে জানতে চান এই মুহূর্তে কত ছাত্র আছে এমন? এডভোকেট জেনারেলসুমেন্দ্র নাথ মুখোপাধ্যায় বলেন, যিনি মামলাকারী তিনি অভিভাবক নন। তিনি বীরভূম জেলার মানুষ। নিউটাউনের একটি স্কুলের বিজ্ঞপ্তির কথা বলা হচ্ছে। যে আবেদন করা হয়েছে সেটা খুব বিপদজনক।
ইন্টারনেট পরিষেবা জেলাগুলো তে খুব একটা ভাল নয়। টিভি চ্যানেলের মাধ্যমেও শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে।
৩ জানুয়ারি থেকে ১৫ থেকে ১৮ বছরের টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে।তিনি বলেন বর্তমানে
করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩.৩৭%রয়েছে।
এবং গত ২৭ জানুয়ারি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়েছেন সরকারের টার্গেট ১৪ বছর ১ দিন অর্থাৎ ১৫ বছরের টিকাদান জানুয়ারি ২০২৩ এর মধ্যে সম্পন্ন হবে।
স্কুল খোলা নিয়ে এই আবেদনের কোনও গ্রহণযোগ্যতা নেই। শিক্ষক, ছাত্র ও অভিভাবকরা যদি কোনও প্রস্তাব দেন সরকারের সেই দরজা সব সময় খোলা আছে। স্কুল ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। শনিবার স্কুলে স্বরস্বতি পূজায় ছাত্রছাত্রীদের উৎসাহ লক্ষ্য করা গেছে। তিনি আরও বলেন এখনও স্কুল খোলা নিয়ে কোনও স্কুল অবজেকশন দেয়নি বা আদালতের দ্বারস্থ হয়নি।একদল আবেদনকারী বলছে স্কুল খুলতে পরেরদিন আরেক দল আবেদনকারী বলছে স্কুল বন্ধ করতে। সরকার কি করবে?
এখনও স্কুল খোলা নিয়ে কোনও স্কুল অবজেকশন দেয়নি বা আদালতের দ্বারস্থ হয়নি।পাশাপাশি
একদল আবেদনকারী বলছে স্কুল খুলতে পরেরদিন আরেক দল আবেদনকারী বলছে স্কুল বন্ধ করতে। সরকার কি করবে?

অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল জানান এই মামলায় কেন্দ্র সংযুক্ত হতে চায় না। তবে কেন্দ্র স্কুল খোলার পক্ষেই।

তবে মামলাকারী উপযুক্ত নথি দিয়ে পরবর্তীকালে আবেদন জানাতে পারবে নির্দেশ প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব ও বিচারপতি রাজর্ষি ভারদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চের।