Date : 2022-05-28

লতার কন্ঠে আকাশ প্রদীপ জ্বলে… আজও বুঁদ বাঙালি স্রোতারা

সায়ান্তিকা ব্যানার্জি, নিউজ ডেস্ক : আজকাল শোনা যায় জেন ওয়াই নাকি পুরনো গান সেইভাবে শোনে না। নাহ এই বদনাম ব্যর্থ হয়েছে যার হাত ধরে তার নাম লতা মঙ্গেশকর। তার সুরের জাদুতে মাতোয়ারা আট থেকে আশি সকলেই। আর ওই যে বলে এই প্রজন্ম পুরনো গান শোনে না- নাহ এ বড্ড ভুল কথা। লতার কালজয়ী গান লগ যা গলে আজও ভীষণ ভাবে প্রাসঙ্গিক।

এ গান এমন এক গান, যার প্রতিটি লাইনের সঙ্গে নিজেকে কানেক্ট করতে পারে প্রতিটি মানুষ। আজও কোন মনখারাপের রাতে যখন হেডফোনে বেজে ওঠে “শায়াদ ফির ইজ জনম মে মুলাকাত হো না হো” চোখ ভিজে যাওয়ার মুহুর্তগুলোয় মানুষ হারানোর ভয় পায় সব ইগো ঝেড়ে ফিরে যেতে চায় ফেলে আসা মুহুর্তদের কাছে। সত্যিই তো আর যদি ‘মুলাকাত’ না হয়! শুধু লতার কন্ঠেই এ গান নয়, আজও বারেবারে এ গানের রিমিক্স হয় আর সোশ্যাল মিডিয়ায় তা তুমুল ভাইরাল হয়। এটাই সুরসম্রাজ্ঞীর ম্যাজিক।

কিংবা একবার বিদায় দে মা ঘুরে আসি- এ গান শুনে চোখ ভিজে যায় আজকের প্রজন্মের ছেলেমেয়েদেরও। প্রতিটি ছত্রে ছত্রে দেশকে স্বাধীন করার লড়াই তুলে ধরা ভীষণ সাবলীল ভাবে, সকলের মধ্যে দেশপ্রেমবোধ জাগিয়ে তোলা বারে বারে এই সবের চাবিকাঠি ছিল যার হাতে আজ তার সঙ্গে সকলের চিরবিচ্ছেদ।

কিংবা লতার কন্ঠে আকাশ প্রদীপ জ্বলে… আজও বুঁদ বাঙালি স্রোতারা। এ গান দিয়েই তো বাঙালি স্রোতাকে মাত করে দিয়েছিলেন তিনি। এ গানের আকর্ষণ আজও ছাড়তে পারেনি কেউই।

এমন একটা দুটো গান নয়, তার এরকম অজস্র গান রয়েছে যা আজও ভীষণ রকম প্রাসঙ্গিক। হ্যাঁ আজও এই প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের মোবাইলের প্লে লিস্ট জুড়ে অনেকখানি থাকেন ভারতের নাইটিংগেল। তবে আজ থেকে তার নামের আগে বসে গেল প্রয়াত শব্দটা এত দিনের সৃষ্টি নিয়ে সিন্দুক পড়ে রইল, শুধু সিন্দুকের অধিকারীনী আর রইলেন না।