Date : 2022-10-06

অন্ধপ্রদেশে দেশি মদ খেয়ে মৃত বহু

তথাগত চ্যাটার্জি, নিউজ ডেস্ক : অন্ধপ্রদেশে দেশি মদ খেয়ে মৃত্যু হল ৫ জনের। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে সে রাজ্যের আদিবাসী অধ্যুষিত একটি গ্রামে। ঠিক কী ঘটেছিল পুরো ঘটনাটি। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে যে মদটি খেয়ে ওই ব্যক্তিরা মারা গিয়েছেন তার স্থানীয় নাম জিলুগু কাল্লু। ঘটনাটি ঘটেছে গোদাবরী জেলার রাজাভোমাঙ্গী এলাকার একটি আদিবাসী সম্প্রগদায়ের একটি গ্রামে। জানা গিয়েছে, ওই গ্রামের পাঁচজন বাসিন্দা আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। এরপরে তাদের একটি স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নিয়ে গেলে তাদের মধ্যে দু-জনের মৃত্যু হয়। এরপরে বাকি তিনজনকে কাকিনাড়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে সেখানে তাদের নিয়ে যাওয়া হলেও শেষরক্ষা হয়নি।

স্বভাবতই এই খবরে রীতিমত সাড়া পড়ে গিয়েছে। মদ খেয়ে কীভাবে তাদের মৃত্যু হল তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ-প্রশাসন। সরকারের গাফিলতি নিয়ে তোপ দেগেছেন তেলেগু দেশম পার্টির প্রধান নেতা চন্দ্রবাবু নাইডু। পাশাপাশি তিনি মৄতদের পরিবারের লোকজনদের সমবেদনা জানিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, এই ঘটনায় রাজ্য প্রশাসন কোনও বিবৄতি দেয়নি। যা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। গত কয়েক বছরে ওই অঞ্চল তথা রাজ্যে দেশী মদের বিক্রিবাটা ব্যাপক হারে বেড়ে গিয়েছে। যার ফলে নকল মদের কারবারও বেড়ে গিয়েছে রাজ্যের বিভিন্ন অঞ্চলে। প্রায়শই দেখা গিয়েছে, আদিবাসী অথবা দুঃস্থরাই এই ধরনের ঘটনার শিকার হচ্ছেন। করোনা অতিমারিতে দেশের অর্থনীতি বেশ কিছুটা নড়বড়ে হয়ে গিয়েছে। তবে সম্প্রতি সেই অবস্থা অনেকটাই কাটিয়ে উঠতে পেরেছে বলে জানানো হয়েছে। এই ঘটনায় শাসক দলের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে চন্দ্রবাবু নাইডু জানিয়েছেন, সরকারের উচিত ছিল মৃতদের প্রতিটি পরিবারকে আর্থিক পঁচিশ লক্ষ টাকা সহায়তা দেওয়া। তিনি আরও জানিয়েছেন সরকার এই ব্যাপারে পদক্ষেপ না করলেও, তিনি মৃতদের পরিবারকে তিনি নিজে উদ্যোগ নিয়ে আর্থিক সাহায্য দান করবেন। তবে এই ব্যাপারে অন্ধপ্রদেশের সরকার কী বলে তাই এখন দেখার।