Date : 2022-10-06

বাজেটে স্বাস্থ্যখাতেও মিলল হতাশাই, ক্ষুব্ধ রাজ্যের চিকিৎসকরা

সায়ান্তিকা ব্যানার্জি, রিপোর্টার : মঙ্গলবার বাজেট পেশ করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। প্রত্যাশিত কোন কিছুই না পেয়ে কার্যত হতাশ মধ্যবিত্ত। আবার একই সঙ্গে মারাত্মক হতাশ রাজ্যের চিকিৎসক মহল। কারণ স্বাস্থ্য খাতেও বরাদ্দ হল না তেমন কিছুই। আজ স্বাস্থ্যখাতে কি বরাদ্দ হবে সেই দিকে তাকিয়ে ছিলেন সকলেই। কিন্তু দিনশেষে হতাশা ছাড়া কিছুই মিলল না।

এই বাজেট নিয়ে বিবৃতি দিয়েছে ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টরস ফোরাম। যেখানে এই
বাজেটকে হতাশাজনক বলে চিহ্নিত করা হয়েছে তাদের তরফে।

করোনা আবহে স্বাস্থ্যব্যবস্থাকে সচল রাখতে মৃত্যু হয়েছে যে সমস্ত স্বাস্থ্যকর্মীদের, তাদের পরিবারের জন্য কোন ক্ষতিপূরণ ঘোষণা হয়নি, আর এই নিয়ে স্বাভাবিক ভাবেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছে এই সংগঠন।

প্রেস বিবৃতিতে লেখা হয়েছে, গত ২ বছর ধরে করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করে যে সমস্ত স্বাস্থ্যকর্মীরা স্বাস্থ্যব্যবস্থাকে সচল রেখেছেন, তাদের অনেকেরই করোনায় মৃত্যু হয়েছে। আজ বাজেটে তাদের পরিবারের জন্য  কোনও ধরনের ক্ষতিপূরণ ঘোষণা না হওয়ায় ক্ষুব্ধ তারা। তাদের দাবি, এই বাজেটের পর কোভিডযোদ্ধারা আরও বেশি করে মানসিক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়বেন, তাদের মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবার প্রয়োজন হবে। সেই কারণেই সম্ভবত সারা দেশে ২৩টি টেলিকনসাল্টেশন কেন্দ্র তৈরির ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

তারা আরও যেরকমটা মনে করছে যে এই বাজেট স্বাস্থ্য ও শিক্ষার জন্য অত্যন্ত হতাশাজনক। স্বাস্থ্যকে অধিকারমুখী না করে ইনশিয়োরেন্স মুখী করা মানে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা থেকে ধীরে ধীরে সরকারি দায় লাঘব করা।

সবমিলিয়ে এই বাজেট যে অত্যন্ত হতাশার এবং এর থেকে প্রাপ্তি যে কিছুই নেই এমনটাই মনে করছেন চিকিৎসকরা।এ বিষয়ে ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টর’স ফোরাম আরও প্রতিক্রিয়া দেবে বলেই জানানো হয়েছে।