Date : 2022-10-06

আসন্ন চার পুরসভা নির্বাচনের আগে স্বস্তিতে নির্বাচন কমিশন

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, রিপোর্টার:- আগামী ১২ই ফেব্রুয়ারি রাজ্যের চার পুরসভা বিধাননগর, চন্দননগর, শিলিগুড়ি এবং আসানসোল।যা গত ২২শে জানুয়ারিতে হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সে সময় রাজ্যের উদ্বেগ জনক করোনা পরিস্থিতি থাকায় আদালতে দ্বারস্থ হয়েছিলেন বাম এবং বিজেপি।
গত ১৩ই জানুয়ারিতে প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তবের ডিভিশন বেঞ্চ নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছিলেন চার পুরসভা র নির্বাচন যাতে ৪-৬ সপ্তাহের জন্য পিছিয়ে দেওয়া যায় কিনা সেবিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন।একদিকে আদালতের নির্দেশ অন্য দিকে রাজ্য সরকারের আবেদন। কমিশন ৩সপ্তাহের জন্য নির্বাচন পিছিয়ে ১২ই ফেব্রুয়ারি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
মামলাকারিদের বক্তব্য হাইকোর্টের নির্দেশ অবমাননা করেছেন রাজ্য নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান।তাই তাঁর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ করে ফের হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন।

মঙ্গলবার মামলার শুনানি চলাকালীন মামলাকারির পক্ষের আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য্য আদালতে জানিয়েছিলেন আদালতের নির্দেশ মেনে কমিশন ৪-৬ সপ্তাহে জন্য পিছিয়ে দেয়নি চার পুরসভার নির্বাচন।কমিশন ৩সপ্তাহের জন্য পিছিয়ে দিলেও কেন পিছিয়ে ছিলেন তাঁর ব্যাখ্যা দেয়নি। প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব উত্তরে জানিয়েছিলেন সুনির্দিষ্ট কোন নির্দেশ রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে দেয়নি। তাই এটা আদালতে অবমাননার সামিল নয়।মামলার শুনানি শেষে রায়দান স্থগিত রাখা হয়েছিল। বুধবার দুপুরে মামলার চূড়ান্ত রায়ে হাইকোর্ট স্পষ্ট করেছেন নির্বাচন কমিশন কোন আদালত অবমাননা করেননি।তাই মামলাকারির আবেদন খারিজ করে দিলেন প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব ও বিচারপতি রাজর্ষি ভারদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চ।