Date : 2022-05-28

উত্তরপ্রদেশে শুরু ভোট, এরইমধ্যে সাহারানপুরে ভোটপ্রচার প্রধানমন্ত্রীর

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক : শুরু হয়ে গেল উত্তরপ্রদেশ বিধানসভার ভোট। বৃহস্পতিবার প্রথম দফার ভোটে ১১টি জেলায় মোট ৫৮টি বিধানসভা আসনে ভোটগ্রহণ হয়ে গেল। নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী-

দুপুর ৩টে পর্যন্ত ৪৮.২৪% ভোট পড়েছে

·       সবচেয়ে বেশি ভোট পড়েছে শামলী জেলায়, ৫৩.১৩%

·        মুজাফফরনগরে ভোট পড়েছে ৫২.২৩%

·       বাগপত জেলায় ভোট পড়েছে ৫০.২১%

·       মেরঠ জেলায় ভোট পড়েছে ৪৭.৮৬%

·       হাপুড় জেলায় ভোট পড়েছে ৫১.৬৭%

·       গাজিয়াবাদ জেলায় ভোট পড়েছে ৪৪.৮৮%

·       গৌতম বুদ্ধ নগরে ভোট পড়েছে ৪৮.২৯%

·       আলিগড় জেলায় ভোট পড়েছে ৪৫.৮৯%

·       মথুরা জেলায় ভোট পড়েছে ৪৯.১৭%

·       আগ্রা জেলায় ভোট পড়েছে ৪৭.৫৩%

·       বুলন্দশহর জেলায় ভোট পড়েছে ৫০.৮১%  

একদিকে যখন উত্তরপ্রদেশের একাংশে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে গিয়েছে, তখনই দিব্যি প্রচারসভা করে বেড়ালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সাহারানপুরের জনসভায় বিজেপিকে ভোট দেওয়ার আবেদন জানালেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর দাবি, রাজ্যকে হিংসামুক্ত করতে বিকল্প একমাত্র বিজেপি। একইসঙ্গে কংগ্রেসকেও নিশানা করেন প্রধানমন্ত্রী। নাম না করে তাঁর মন্তব্য, কেন্দ্রে বিজেপির বদলে কোনও পরিবারতান্ত্রিক দল থাকলে করোনার ভ্যাকসিনও কিনতে হত বাসিন্দাদের। আপনারা জীবন মৃত্যুর খেলা খেলতে বাধ্য হতেন। মোদী বলেন, যারা ভ্যাকসিন নিয়ে কুকথা রটিয়েছে, বিজেপিকে ভোট দিয়ে সপাটে জবাব দিন তাদেরকে।

এর আগেও করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে রাজনীতির অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। করোনা ভ্যাকসিনের সার্টিফিকেটে প্রধানমন্ত্রীর ছবি দেওয়া নিয়ে গর্জে উঠেছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টিকা নিয়ে বারবার বিরোধীদের প্রশ্নের মুখে পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু তাকে পরোয়া না করেই উত্তরপ্রদেশের ভোট ময়দানে সেই ভ্যাকসিনকেই হাতিয়ার করলেন মোদী। একদিন আগে একই ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীকে বিঁধেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, জনগণ নিজের টাকায় টিকা নিয়েছেন। রাজ্যের টাকাই তো রাজ্যকে দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। নিজের ছবি লাগিয়ে ইঞ্জেকশন দিচ্ছেন। মৃত্যু হলেও আপনার ছবি লাগিয়ে সৎকারে যেতে হচ্ছে মানুষকে।

তবে বিরোধীদের কথায় একেবারেই কান দিতে নারাজ প্রধানমন্ত্রী। উত্তরপ্রদেশের প্রচারসভায় তাঁর দাবি, মানুষ ঠিক করে নিয়েছে বিজেপিই উত্তরপ্রদেশকে ভীতিহীন রাখবে, মহিলাদের জন্য সুরক্ষিত রাখবে এবং অপরাধীদের জেলে ঢোকাবে। তাই উত্তরপ্রদেশে জিতবে বিজেপিই।