Date : 2022-10-05

কেন মাধ্যমিক পরীক্ষার জন্য ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ!রাজ্যের রিপোর্ট তলব

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, রিপোর্টার:- মাধ্যমিক পরীক্ষার মাঝেই হাই কোর্টে দায়ের জনস্বার্থ মামলা।রাজ্য সরকারের কাছে রিপোর্ট তলব প্রধান বিচারপতি র ডিভিশন বেঞ্চের।
বৃহস্পতিবার ফের মামলার শুনানি।

এবার মাধ্যমিক পরীক্ষায় নয়া নির্দেশ দিয়েছে পর্ষদ। নকল রুখতে কড়া পদক্ষেপ করে পর্ষদের মাধ্যমিকের জন্য ৭ মার্চ থেকে ১৬ মার্চ পর্যন্ত রাজ্যের ৮টি জেলায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেই মর্মে বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করা হয়েছে। এবার পর্ষদের বিজ্ঞপ্তি চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে দায়ের হল জনস্বার্থ মামলা। বুধবার মামলাটি ওঠে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব ও বিচারপতি রাজর্ষি ভারদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে। এদিন শুনানিতে মামলাকরির পক্ষের আইনজীবী জানান পর্ষদের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৩টে ১৫ মিনিট পর্যন্ত ইন্টারনেট বন্ধ থাকলে, অনেক জরুরি পরিষেবা ব্যাহত হবে। সেই সঙ্গে কোন বিজ্ঞপ্তি জারি না করে শুধু ১৪৪ ধারা জারি করে কীভাবে, প্রশ্ন তোলেন মামলাকারীর।

রাজ্যের এডভোকেট জেনারেল সৌমেন্দ্র নাথ মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এই নিয়ে রিভিউ মিটিং হবে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায়। সেখানে এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তাছাড়া ভয়েস কল, এসএসএস ইত্যাদিতে বাধা নেই। সকাল ১১ টায় লাঞ্চ টাইম, তারপর ৩ টে চা খাওয়ার সময়। এই সময়ে ডেটা বন্ধ থাকবে, তবে এসএমএসে কাজ করা যেতে পারে।

মালদহ, মুর্শিদাবাদ, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি, বীরভূম এবং দার্জিলিং জেলায় কয়েকটি ব্লকেই এই নিয়ম রাখা হয়েছে বলে এদিন আদালতে স্পষ্ট করেন তিনি। যদিও মামলাকারীর বক্তব্য ইন্টারনেট বন্ধ করা মানে মানুষের বাক স্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপ করা। বৃহস্পতিবার এবিষয়ে একটি রিভিউ মিটিং রয়েছে। এর পর আদালতে বেলা দুটোয় মামলা শুনানি থাকবে। সেখানে পর্যালোচনা বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

ঠিক কী বলা হয়েছে।পর্ষদের বিজ্ঞপ্তিতে ?

পরীক্ষা হবে বেলা ১১.৪৫ মিনিট থেকে, চলবে ৩ টে পর্যন্ত। সেক্ষেত্রে রাজ্যের ৭ জেলা মালদহ, মুর্শিদাবাদ, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি, বীরভূম এবং দার্জিলিঙে এই সময়ে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

মূলত মাধ্যমিক সেন্টারগুলির আশেপাশের এলাকাগুলিতে জ্যামার লাগিয়ে দেওয়া হবে। তাতে যতক্ষণ পরীক্ষা চলবে, ততক্ষণ বন্ধ থাকবে নেট পরিষেবা। ৭, ৮,৯, ১১, ১২, ১৪, ১৫ ও ১৬ মার্চ নেট পরিষেবা বন্ধ থাকবে। জেলা ভিত্তিক বিভিন্ন ব্লকে নেট পরিষেবা বন্ধ থাকবে। যাতে প্রশ্নপত্র ফাঁস না হয়, সেই কারণেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানায় পর্ষদ।