Date : 2022-10-01

পিছিয়ে দেওয়া হতে পারে এলআইসির আইপিও আনার তারিখ

পৌষালী সেনগুপ্ত, নিউজ ডেস্ক : ইউরোপের আকাশে এখন যুদ্ধের ঘনঘটা।ইউক্রেন এবং রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধের আবহে যে কোনও সময় ইউরোপের বাজার ভেঙে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।সেই সব সম্ভাবনার কথা ভেবে এলআইসির আইপিও আনার তারিখ পিছিয়ে দিতে পারে কেন্দ্র। ইউক্রেনে যুদ্ধ পরিস্থিতির অবনতি হতেই এলআইসির শেয়ার আনা নিয়ে নতুন করে ভাবনা চিন্তা শুরু করেছে সরকার।পরিস্থিতির উন্নতি না হলে চলতি অর্থবর্ষে এলআইসির শেয়ার নাও আনা হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে। যুদ্ধ পরিস্থিতি বিশ্বের বাজারে অনিশ্চয়তা তৈরী করেছে।যুদ্ধের গতিপ্রকৃতি আগামিদিনে কোন পথে এগোবে তার উপর নির্ভর করছে বাজারের পরিস্থিতিও। যুদ্ধের আবহে বাজারে যে ঝুঁকি আছে সেটা আগেই মেনে নিয়েছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। তবে এলআইসির আইপিও আনার বিষয় বদ্ধপরিকর ছিল কেন্দ্র। কিন্তু কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রক সূত্রে খবর সরকার সেই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করছে। বাজারের বর্তমান পরিস্থিতিতে আইপিও আনাটা ঠিক হবে কিনা, তা নিয়েও সংশয় রয়েছে।প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছিল এলআইসির আইপিওর বাজার মূল্য হতে পারে প্রায় ৬০ বাজার কোটি টাকা।বাজার বিশেষজ্ঞদের একটা বড় অংশ মনে করছেন, এত বড় অঙ্কের আইপিও এর আগে বাজারে আসেনি। ইতিমধ্যেই এলআইসির আইপিওর খসড়াও প্রস্তুত হয়ে গিয়েছে।আইপিও বাজারে আনার আগে রাষ্ট্রায়ত্ত বিমা সংস্থায় ২০ শতাংশ পর্যন্ত প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগেও ছাড়পত্র দিয়েছে সরকার। সব ঠিক থাকলে আগামী ১১ মার্চই দেশের বৃহত্তম বিমা সংস্থার আইপিও বাজারে আসার কথা। কিন্তু সবটাই এখন নির্ভর করছে যুদ্ধ পরিস্থিতির উপর।