Date : 2022-10-06

বামেদের ডাকা দুদিনের ধর্মঘটে মিশ্র প্রভাব, মিছিল ,স্লোগান, অবরোধে, রাস্তার দখল লাল পতাকার।

সুচারু মিত্র, রিপোর্টার:পেট্রোল-ডিজেলের দাম বেড়েই চলেছে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে গ্যাসের দাম ও আর সেই ইস্যুকে সামনে রেখেই বামেদের ডাকা ধর্মঘট, সাথে সংযুক্ত হয়েছিল কর্মসংস্থান এবং শিক্ষাক্ষেত্রে বেসরকারিকরণের প্রতিবাদ। কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নগুলোর ডাকে ৪৮ ঘন্টা ধর্মঘটের আজ দ্বিতীয় দিনে শহর থেকে শহরতলীতে মিশ্র প্রভাব বনধের। সকালবেলাতেই সুলেখা মোড় থেকে বাম ছাত্র যুব শ্রমিক সংগঠনের মিছিল, আর সেই মিছিল গাঙ্গুলিবাগানে পৌঁছতেই শুরু হল বাম কর্মী সমর্থকদের অবরোধ। অন্যদিকে বেহালা চৌরাস্তার উপর বসে পড়লেন বাম কর্মী সমর্থকরা। না এটাকে তারা ক্ষমতা প্রদর্শন বলতে নারাজ, বামেরা বলছে এই ধর্মঘটের মাধ্যমে তারা সাধারণ মানুষকে বোঝানোর চেষ্টা করছেন আগামী দিনে কি অবস্থা হতে চলেছে। বৃদ্ধ তন্ত্রের অবসান ঘটিয়ে সিপিআইএমে এসেছে আমূল পরিবর্তন, সেই তারুণ্যে ভর করেই এবার সিপিএম চাইছে আন্দোলন ধর্মঘটের রাস্তায় থাকতে।

তাই দেখা গিয়েছে নতুন রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিমকেও রাস্তায় নামতে। কেন্দ্রীয় সরকারের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে বামেদের লড়াই চলছে চলবে বলেই ধর্মঘটের পর্ব থেকেই বার্তা সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদকের। সাম্প্রতিকতম সময়ে পৌর নির্বাচন গুলোতে দেখা গেছে বামের কিছুটা হলেও রক্তক্ষরণে প্রলেপ দিয়েছে, আর তাই বারবার লড়াই আন্দোলনের রাস্তায় নেমে মানুষের কাছাকাছি পৌঁছানোর চেষ্টায় বামেরা। কোচবিহার থেকে পুরুলিয়া সর্বত্র বনধ সমর্থকদের অবরোধ মিছিল, স্লোগান। বনধে মিশ্র প্রভাব পড়লেও মানুষের মনে কি জায়গা করতে পারল বামেরা? তাই বলবে আগামী সময়।