Date : 2022-05-28

রামপুরহাট কাণ্ডে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রাজ্যের ওপরে আস্থা! ২৪ঘন্টার মধ্যে রিপোর্ট তলব প্রধান বিচারপতি ডিভিশন বেঞ্চ।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায় রিপোর্টার: বীরভূম জেলার রামপুরহাট এর বগটুই গ্রামে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে 24 ঘণ্টার মধ্যে রিপোর্ট তলব করলেন প্রধান বিচারপতি ডিভিশন বেঞ্চ ।
বুধবার মামলার শুনানি চলাকালীন সিপিআইএমের রাজ্য সম্পাদক মোহাম্মদ সেলিমের পক্ষের আইনজীবী আইনজীবী সব্যসাচী ভট্টাচার্য মামলার অনুমতি চাইছি। মহম্মদ সেলিম এলাকায় গিয়েছিলেন। তিনি এই মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনা সমস্ত এভিডেন্স ওপেন আছে। যেটা সংরক্ষিত থাকা দরকার। অভিযুক্তরা গ্রামেই আছেন।
আইনজীবী ফিরোজ এডুলজী :— ১) CIFL এর পরিকাঠামো নেই এই রাজ্যে।
২) সিটে আমার আপত্তি আছে। ১৬/৭/২০১৪ রিজনুর মামলায় কন্সপিরিসিতে জ্ঞানবন্ত সিং ছিল।
৩) সঞ্জয় সিং কে নির্বাচন কমিশন সরিয়ে দিয়েছিল।
প্রধান বিচারপতি :— সিটে কতজন মেম্বার
আইনজীবী ফিরোজ এডুলজি :— ৩ জন
আইনজীবী কুমার জ্যোতি তিওয়ারি :— ১) মৃত্যু নিয়ে বিভ্রান্ত হচ্ছে। পুলিশ বলছে ৮ দমকল বলছে ১০
২) স্থানীয় মানুষ ঘর ছেড়ে চলে যাচ্ছে।
৩) ছোট আংগারিয়া তে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছিল। সেখানে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল হাইকোর্ট
বিজেপি আইনজীবী তরুণ জ্যোতি তিওয়ারি :— ১) মৃত্যু নিয়ে বিভ্রান্ত হচ্ছে। পুলিশ বলছে ৮ দমকল বলছে ১০
২) স্থানীয় মানুষ ঘর ছেড়ে চলে যাচ্ছে।
৩) ছোট আংগারিয়া তে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছিল। সেখানে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল হাইকোর্ট
আইনজীবী :– ১) নিরপেক্ষ তদন্ত কারি সংস্থা দিয়ে তদন্ত হোক।
২) ডিজি ঘটনাস্থলে না গিয়ে পুরো পর্যবেক্ষণ না করে বিবৃতি দিয়েছেন।
৩) পুলিশের কাছ থেকে অবিলম্বে রিপোর্ট চাক আদালত
প্রধান বিচারপতি :– আমরা কোনও চাই প্রকৃত ঘটনা উঠে আসুক।
সিপিআইএম আইনজীবী রবিশঙ্কর চট্টোপাধ্যায় :– কুণাল ঘোষের বিবৃতি বিভ্রান্ত মূলক
বিজেপি আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা টেব্রিওয়াল :– ১) জ্ঞানবন্ত্ত সিং আনিস খানের মামলার তদন্ত করছে।
২) সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত এটা একটি দলের অন্তর্বতী রাজনৈতিক সংঘর্ষ।
রাজ্যের এডভোকেট জেনারেল সৌমেন্দ্র নাথ মুখোপাধ্যায়:– ঘটনাটি দুঃখজনক। শকিং। তদন্ত চলছে। আমি সব শুনলাম।
১) প্রত্যক্ষদর্শী নিরাপত্তা
২) এলাকা তদন্তের জন্য ঘিরে রাখা আছে
৩) ফরেনসিক টিম এলাকায় গেছে। তারা পরীক্ষা করছে। তারা এভিডেন্স সংরক্ষণ করছে।
৪) আমি আদালতের স্বতঃপ্রণোদিত সিদ্ধান্তকে সানন্দে গ্রহণ করছি।
৫) এই মুহূর্তে তদন্ত চলবে আদালতের নজরদারিতে তদন্ত হোক।
৬) আমরা তদন্তের গতিপ্রকৃতি নিয়ে আদালতের সামনে রিপোর্ট দাখিল করবো।
৭) এই ঘটনার তদন্ত হোক। কোনও রাজনৈতিক মন্তব্য নয়। ঘটনা নিয়ে রাজনীতি দুর্ভাগ্য জনক।
প্রধান বিচারপতি:– আমরা আসল ঘটনার তদন্ত চাই
আইনজীবী সব্যসাচী চট্টোপাধ্যায় :– আদালতের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি আদালত পুলিশকে নির্দেশ দিক পুলিশ যেন নিরপেক্ষভাবে কাজ করে।
এডভোকেট জেনারেল :–৯) পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই তদন্তের প্রয়োজন নেই।
আইনজীবী তরুণ জ্যোতি তিওয়ারি :— রাজ্যের পরিষদীয় মন্ত্রী বলেছেন এই ঘটনা রাজ্যের বিরুদ্ধে বড় ষড়যন্ত্র।
মৃত সংখ্যা নিয়ে নানান ধোঁয়াশা।
গ্রামবাসীরা বাড়ি ছেড়ে পালাচ্ছেন ভয়ে। প্রত্যেক গ্রামবাসীর নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করুক হাইকোর্ট,
দায়িত্বশীল শাসক দলের নেতারা নানারকম মন্তব্য করছেন,তাদের বিরত করুক হাইকোর্ট।
এডভোকেট জেনারেল :— ১০) গ্রামবাসীদের ভয় দূর করতে, মনোবল বাড়াতে যাবতীয় পদক্ষেপ করছে রাজ্য
১১) কী পদক্ষেপ হয়েছে তার রিপোর্ট দিতে চাই আদালতে,তাড়াতারি
১২) যদি প্রশাসনের শীর্ষস্তর থেকেই যদি বিতর্কিত মন্তব্য করা হচ্ছে।
১৩) গ্রামবাসীদের মনোবল বাড়াতে আরও পদক্ষেপ করবে রাজ্য।
প্রধান বিচারপতি:— বিতর্কিত মন্তব্য হলে গোটা ঘটনার ফোকাস নড়ে যায়, তদন্তের ফোকাসও।
এডভোকেট জেনারেল:— ১০) গ্রামবাসীদের ভয় দূর করতে, মনোবল বাড়াতে যাবতীয় পদক্ষেপ করছে রাজ্য
১১) কী পদক্ষেপ হয়েছে তার রিপোর্ট দিতে চাই আদালতে,তাড়াতারি
১২) যদি প্রশাসনের শীর্ষস্তর থেকেই যদি বিতর্কিত মন্তব্য করা হচ্ছে।
১৩) গ্রামবাসীদের মনোবল বাড়াতে আরও পদক্ষেপ করবে রাজ্য।
প্রধান বিচারপতি কেন্দ্রের আইনজীবীরপ্রত্যুতারে :– আপনারা কি ফরেনসিকে নমুনা আদালত করলে এই মুহূর্তে সংগ্রহ করতে পারবেন?
মামলাকারি আইনজীবীদের দাবি :– জেলা জজের তত্ত্বাবধানে ময়নাতদন্ত হোক। ভিডিও রেকর্ডিং করা হোক।
রামপুর হাট নির্দেশ……..

২৪ ঘণ্টার মধ্যে রিপোর্ট তলব প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের।

  • তদন্ত দ্রুত করে সত্য সামনে আনতে হবে। একটা সুযোগ রাজ্যকে দেওয়া হবে তদন্ত-সহ কেস ডায়রি, রিপোর্ট জমা দিতে হবে।
  • নিশ্চিত করতে হবে, ওই জায়গার কোনও তথ্য নষ্ট করা যাবে না। সিসিটিভি ক্যামেরা লাগাতে হবে।
  • ক্ষতিগ্রস্ত জায়গায় সব কোন থেকে ক্যামেরা লাগাতে হবে।
  • ক্যামরা যেন সব রেকর্ড করে তা নিশ্চিত করতে হবে। কোনও তথ্য যেন নষ্ট না হয়।
  • পর্যাপ্ত ক্যামেরার মেমোরি রাখতে। আদালতের পরের নির্দেশ ছাড়া রেকর্ড যেন বন্ধ না করা হয়।
  • জেলা আদালতের বিচারকের নজরদারিতে সিসিটিভি মনিটরিং করা হবে।
  • ফরেন্সিক পরীক্ষার জন্য সিএফএসএল, দিল্লিকে দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে তথ্য সংগ্রহ করতে হবে।
  • DG, IGP ও পূর্ব বর্ধমানের জেলা জজ প্রত্যক্ষদর্শীদের নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করবে।
  • সমস্ত পোস্টমর্টেম করা হবে ভিডিয়োগ্রাফির নজরদারিতে।
  • আগামীকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ফের শুনানি।
  • রামপুরহাট কাণ্ডেমোট ৭ টি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়।