Date : 2022-10-02

শুধু সংস্কার নয়, বাড়ির প্রবেশ পথে লেবু লঙ্কা ঝোলানোর বৈজ্ঞানিক কারণও আছে

শাহিনা ইয়াসমিন, রিপোর্টার: অশুভ শক্তি ও অন্যের কুদৃষ্টি থেকে দূরে রাখতে লেবু-লঙ্কার তুলনা হয় না এমনটাই বাড়ির গুরুজনেরা বলে থাকেন। কিন্তু এর নেপথ্যেও যে বৈজ্ঞানিক ও বাস্তুশাস্ত্রসম্মত কারণ রয়েছে। যার জন্যই ঘর ও দোকানের বাইরে টাঙানো হয় লেবু লঙ্কা। সে বিষয়ে অনেকের অজানা ৷

ভারতীয় সংস্কৃতির প্রচলিত বিশ্বাস যে বাড়িতে প্রবেশের পথে লেবু ও লঙ্কা ঝুলিয়ে রাখলে ভাল হয় বা শুভ হয়। দীর্ঘদিন ধরেই এই প্রথা চলে আসছে। বাড়িতে নেতিবাচক শক্তি প্রবেশে ও ইতিবাচক প্রভাবকে ত্বরান্বিত করতে প্রভাবশালী উপাদান হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে লেবু ও লঙ্কা কে। বলা হয় যে, অশুভ শক্তি, অন্যের কুদৃষ্টি দূরে রাখতে লেবু-লঙ্কার তুলনা হয় না। কিন্তু এর নেপথ্যে রয়েছে বৈজ্ঞানিক ও বাস্তুশাস্ত্রসম্মত কারণ।


বৈজ্ঞানিক কারণ:
বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিকোণ থেকে যদি দেখা হয় তাহলে লেবু-লঙ্কা অত্যন্ত উপকারী। কেন না লেবু স্বভাবগুণে টক এবং লঙ্কা খুবই তিক্ত। লেবুর টক এবং লঙ্কার তীব্রতার মিশ্রিত সুগন্ধ মাছি বা অন্যান্য কীটপতঙ্গ প্রতিরোধে সহায়তা করে। তাই দরজার বাইরে লেবু-লঙ্কা টাঙিয়ে রাখলে তা মশা এবং অনেক পতঙ্গ ঘরে প্রবেশ করতে পারে না। তার ফলে আমাদের অসুস্থ হওয়া থেকে রক্ষা করে এবং সুস্বাস্থ্য বজায় রাখে। বিশ্বাস করা হয় যে বাড়িতে লেবু এবং লঙ্কা ঝুলিয়ে রাখলে তা মানুষকে খারাপ দৃষ্টি থেকে রক্ষা করা হয়। লেবুর টক স্বাদ এবং লঙ্কার তীব্র স্বাদ দুষ্ট মানুষের কুদৃষ্টিকে ব্যাহত করে। আসলে, আমরা যখন লঙ্কা, লেবুর মতো জিনিস দেখি, তখন এগুলো আমাদের মনের মধ্যে স্বাদ অনুভব করাতে শুরু করে। যার কারণে দুষ্ট মনোভাবসম্পন্ন মানুষ দীর্ঘক্ষণ যে কোনও বিষয়বস্তুর দিকে তীক্ষ্ণ নজর দিতে পারে না এবং সঙ্গে সঙ্গে সেখান থেকে