Date : 2022-05-29

রাশিয়ার থেকে ৩ মিলিয়ন ব্যারেল অপরিশোধিত তেল কিনছে ভারত

মাম্পি রায়, নিউজ ডেস্ক : রাশিয়ার থেকে ৩ মিলিয়ন ব্যারেল অপরিশোধিত তেল আমদানি করতে চলেছে ভারত। ইতিমধ্যে রাশিয়ার অয়েল কোম্পানির সঙ্গে তেল আমদানির চুক্তি স্বাক্ষর করেছে ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন লিমিটেড। রাশিয়া ও ইউক্রেনের যুদ্ধ নিয়ে রাশিয়ার সমালোচনার পথে হেঁটেছে পশ্চিমি দেশগুলো। যদিও এক্ষেত্রে নিরপেক্ষ অবস্থান নিয়েছে ভারত। এমনকি রাষ্ট্রসংঘেও ভোটদান থেকেও বিরত থেকেছে ভারত। যদিও দুই দেশকেই যুদ্ধ বন্ধের বার্তা দিয়েছে ভারত। এক্ষেত্রে কূটনৈতিক আলোচনার মাধ্যমে যুদ্ধে ইতি টানার পরামর্শ দিয়েছে ভারত। এরইমধ্যে যুদ্ধ পরিস্থিতিতে আমেরিকার তরফে রাশিয়ার উপর একাধিক নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। রাশিয়া থেকে তেল আমদানিতেও নিষেধাজ্ঞা জারি করে আমেরিকা। যদিও সস্তায় তেল কেনার ক্ষেত্রে উদ্যোগী হয়েছিল ভারত। এই উদ্যোগ নিয়ে আমেরিকা জানায়, এতে রাশিয়ার উপর চাপানো আর্থিক নিষেধাজ্ঞার শর্ত ভাঙবে না ঠিকই। তবে এর অর্থ ইউক্রেনে সামরিক হামলাকে সমর্থন করা। যা ইতিহাসের পাতায় লেখা থাকবে। এর পাল্টা জবাব দিয়ে ভারতের স্পষ্ট বার্তা, ভারত আইনসঙ্গত জ্বালানি কিনছে। এই নিয়ে রাজনীতি করা উচিৎ নয়। এবার সেই মার্কিন নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করেই রাশিয়ার থেকে তেল কিনছে ভারত।  রাশিয়ার একটি তেল কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন লিমিটেড।  ওই চুক্তি অনুযায়ী ৩ মিলিয়ন ব্যারেল অপরিশোধিত তেল আমদানি করতে চলেছে ভারত।

২৩দিন কেটে গেলেও ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ থামার নাম নেই। এএফপি সূত্রে খবর, দক্ষিণ ইউক্রেনের সেনা ব্যারাকে প্রচুর গোলাবর্ষণ হয়েছে রুশ সেনা। মারিউপোল, আভদিভকা, স্টেপনি সহ বিভিন্ন জায়গায় গুলি চলেছে। ইউক্রেন পুলিশের তরফে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় কমপক্ষে ৮টি গ্রাম ও শহরে গুলি চালিয়েছে রুশ সেনা।  শনিবার রুশ সেনার গুলিতে অন্ততঃ ৩৭টি বিল্ডিং এবং কাঠামো নষ্ট হয়েছে । প্রচুর মানুষের মৃত্যু হয়েছে এবং আহত হয়েছেন অনেকে। রুশ আগ্রাসন বন্ধ করতে মস্কোর কাছে শান্তিপূর্ণ আলোচনার আবেদন জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তিনি বলেন নাহলে যুদ্ধের জেরে যে ক্ষতি হবে, রাশিয়ার একাধিক প্রজন্মকে তার দাম দিতে হবে।  

রাশিয়ার আগ্রাসনের নিন্দায় সরব হয়েছে আমেরিকা সহ পশ্চিমি দেশগুলি। রাশিয়া থেকে তেল আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা করেছে আমেরিকা। তারপরই ভারত সহ অন্যান্য বড় আমাদানিকারক দেশগুলিকে ব্যাপক ছাড়ে তেল এবং অন্যান্য সামগ্রী রফতানির কথা জানায় রাশিয়া। সেই সুযোগই এবার কাজে লাগাতে ময়দানে নেমে পড়েছে ভারত।