Date : 2022-05-27

দোলের আবীর অনেক ক্ষতির কারণ

রিমিতা রায়, নিউজ ডেস্কঃ হাতে আর কয়েকটা দিন। তার পরই লাল-নীল-সবুজের মেলা বসবে। নানা রঙে রঙিন হয়ে উঠবে সকলে। রঙে রঙে ঢাকা পড়বে আসল চেহারা। রঙে রেঙে ওঠার পর নিজেকে চেনাই প্রায় যাবে না। একদিন দোল ৷ আরেকদিন হোলি ৷ কোথাও কোথাও তো তিনদিন ধরে চলে রঙের খেলা ৷ কেউ কেউ আবার মেতে ওঠেন প্রি ও পোস্ট হোলিতেও ।বাজারে নানা ধরনের রং পাওয়া যায়। প্রত্যেক রং বা আবিরেই কিছু না কিছু রাসায়নিক থাকে। কিন্তু জানেন কি? আপনি যে আবির ব্যবহার করছেন, তা আপনার জন্য কতটা ক্ষতিকারক? আবিরে থাকাএই রাসায়নিকের মাত্রার উপরই নির্ভর করে তা আপনার ত্বক এবং চুলের জন্য কতটা ক্ষতিকারক হতে পারে। এই ক্ষতিকর রাসায়নিক মেশানো রঙের প্রভাবে আমাদের চুল, ত্বক এমনকি চোখেরও মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।অনেকেই বলে থাকেন, রং দিয়ে দোল খেলা খারাপ, আবির দিয়ে নয় ৷

তবে নতুন গবেষণায় উঠে এল তথ্য, আবিরও যথেষ্ট পরিমাণে ক্ষতিকারক স্বাস্থ্যের পক্ষে ৷রঙের কারণে ত্বক ভীষণরকম শুষ্ক হয়ে যায়, এমনকী, রোমছিদ্র দিয়ে ত্বকের ভিতরেও রং বসে যেতে পারে। সংবেদনশীল ত্বক হলে জ্বালা আর ফুসকুড়ি দেখা দিতে পারে। আবার চুলে রং লাগলেও চুল শুষ্ক আর রুক্ষ হয়ে যেতে পারে। আর দোলের সময় যেহেতু বাড়ির বাইরেই প্রায় সারা দিনটা কাটে, তাতেও চুল নষ্ট হয়ে যায়। রঙের রাসায়নিকের সঙ্গে যোগ হয় সূর্যের ক্ষতিকর প্রভাব। সব মিলিয়ে চুল আর ত্বকের বারোটা বাজার পক্ষে যথেষ্ট। তাই বলে কি রং খেলবেন না? কিছু উপায় মানলে রঙের কারণে ক্ষতি অনেক কমতে পারে।দোলের দিন ফুলহাতা জামা প্যান্ট পরুন।সারা শরীর আর মুখে ভারী কোনও ময়েশ্চারাইজ়ার অথবা নারকেল বা অলিভ তেল মেখে নিন।চুলটা বিনুনি করে গুটিয়ে বেঁধে নিন।বাড়তি সুরক্ষার জন্য মাথায় একটা স্কার্ফ বা ওড়নাও শক্ত করে জড়িয়ে রাখুন।