Date : 2022-05-27

আইন ক্ষেত্রে আঞ্চলিক ভাষায় জোর

পৌষালী সেনগুপ্ত, নিউজ ডেস্ক ঃ দেশের বিচার ব্যবস্থাকে আরও উন্নত করতে আঞ্চলিক ভাষা ব্যবহারের উপরেই জোর দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার দিল্লির বিজ্ঞান ভবনে এক সম্মেলনে বললেন তিনি।বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও হাই কোর্টের বিচারপতিদের যৌথ সম্মেলনে তিনি বলেন ”আদালতে আঞ্চলিক ভাষা ব্যবহারে জোর দিতে হবে আমাদের। এর ফলে আমজনতার বিশ্বাস বাড়বে দেশের বিচার ব্যবস্থার প্রতি। তাঁরা এর সঙ্গে আরও বেশি করে সংযোগ অনুভব করবেন।”এদিনের সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে অন্তত ১৮০০ আইন রয়েছে যা আজ অপ্রাসঙ্গিক। কেন্দ্র এই আইনগুলিকে চিহ্নিত করেছে বলেও জানান তিনি। মোদী আরও বলেন, ”কেন্দ্র ইতিমধ্যেই ১৪৫০টি আইন বাতিল করেছে। কিন্তু রাজ্যগুলি মাত্র ৭৫টি আইন বাতিল করেছে।” দিন কয়েকআগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বক্তব্যকে কেন্দ্র করে হিন্দি আগ্রাসনের অভিযোগ ওঠে। ইংরেজির বিকল্প হিসেবে হিন্দিকে গ্রহণ করার আবেদন জানাতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। এরপরই সমালোচনা শুরু হয়। এরপরই শনিবার আইনমন্ত্রকের সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্য সেই বিতর্কে রাশ টানার চেষ্টা বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।এর পাশাপাশি দেশে বিচারাধীন বন্দিদের মামলাগুলিকে প্রাধান্য দেওয়ার বিষয়ে হাই কোর্টের বিচারপতি ও মুখ্যমন্ত্রীদের কাছে আবেদন জানান তিনি। তিনি বলেন, দেশে প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষ বন্দি রয়েছেন। তাঁদের অধিকাংশই দরিদ্র মানুষ। প্রতিটি জেলাতেই জেলা আদালতের বিচারকের নেতৃত্বে একটি করে কমিটি রয়েছে বিষয়টি দেখার। তারা চাইলে ওই বন্দিরা জামিনে মুক্তিও পেতে পারেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে সকলের কাছে আর্জি জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এই অনুষ্ঠানেই উপস্থিত ছিলেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এম ভি রামানা। তিনি বলেন দেশে পর্যাপ্ত আইনজীবী না থাকায় দেশে বিচার প্রক্রিয়া গতি হারাচ্ছে। এই মুহুর্তে দেশের বিভিন্ন আদালতে আইনজীবী নিয়োগ প্রয়োজন বলে জানান তিনি। এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতেই দিল্লি গেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।