Date : 2022-10-01

দিনভর দৌড়েও মিললো না হাইকোর্টে রক্ষাকবচ উপদেষ্টা কমিটির সদস্যদের

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক:- সব চেষ্টাই ব্যর্থ তাই সিবিআই এর মুখোমুখি হওয়া ছাড়া আর দ্বিতীয় কোন পথ খোলা রইল না উপদেষ্টা কমিটির সদস্যদের। এই মুহূর্তে কলকাতা হাই কোর্টের শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির ১০টি মামলার শুনানি চলছিল বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন ও বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তের ডিভিশন বেঞ্চে।

সপ্তাহের প্রথমদিনে সোমবার সকালে বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন ও বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তের ডিভিশন বেঞ্চ ব্যক্তিগত কারণে মামলা থেকে সরে দাঁড়ালেন।অন্য দিকে একক বেঞ্চের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় নির্দেশ দেন ডিসি সেন্ট্রালকে আচার্য ও পি কে ব্যানার্জীকে ২ পি এম সিবিআইয়ের দফতরে নিয়ে যাবে। সিপি বিধাননগরকে নির্দেশ বাকি দুজনকে তিনটার মধ্যে নিয়ে যেতে নিজাম প্যালেসে।যদি উপদেষ্টা কমিটির চার সদস্য সিবিআইয়ের দফতরে হাজিরা না দেন তাহলে তাঁদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়।

সকাল ১১.৫০ মিনিটে ৫উপদেষ্টা কমিটি সদস্যের পক্ষের আইনজীবী রা প্রধান বিচারপতির দ্বারস্থ হন।প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্ত দুপুর১টার সময় তাঁদের আসতে বলেন।
দুপুর ১,০৫ মিনিটে কমিটির আইনজীবীগন প্রধান বিচারপতি র দৃষ্টি আকর্ষণ করে জানান তাঁদের মক্কেলকে সিবিআই দফতরে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।এবং আজই তাঁদের যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।প্রধান বিচারপতি আইনজীবীদের আশ্বস্ত করে বলেন দুপুর ২টোর সময় তিনি নতুন বেঞ্চ গঠন করে দেবেন।
বেলা ২টো, উপদেষ্টা কমিটির আইনজীবীরা জানতে পারেন তাঁদের মামলা বিচারপতি সি সিভাগনাম ও বিচারপতি হিরন্ময় ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে শুনানি হবে।২,৩০মিনিটে ডিভিশন বেঞ্চের পক্ষে জানিয়ে দেওয়া হয় তাঁরা মামলাটি শুনতে পারবেন না।এদিকে উপদেষ্টা কমিটির রক্তচাপ বাড়তে শুরু করেছে।
২বেজে ৪৫মিনিটে ফের প্রধান বিচারপতির দ্বারস্থ কমিটির আইনজীবীরা। দুপুর গড়িয়ে বিকেল ৩.১০ মিনিটে জানা যায় বিচারপতি সৌমেন সেন ও বিচারপতি অজয় কুমার মুখোপাধ্যায়ের বেঞ্চে মামলার শুনানি হবে।এখানেই শেষ নয়, বিচারপতি সৌমেন সেনের ডিভিশন বেঞ্চে র তরফে জানানো হয় যে তালিকা তাঁদের কাছে আছে সেই মামলা শেষ করেই তাঁরা এই মামলাটি শুনবেন।
৩.৪৫মিনিটে বিচারপতি সৌমেন সেনের ডিভিশন বেঞ্চ মামলাটি শুনবে না বলে উপদেষ্টা কমিটির আইনজীবীদের জানিয়ে দেন।
৪,১০ মিনিটে ফের প্রধান বিচারপতি র ডিভিশন বেঞ্চে ছুটে যায়।কারণ আদালতের সময়সীমা পেরিয়ে যাচ্ছে।৪টে বেজে ২০,মিনিটে প্রধান বিচারপতি জানিয়েদেন এত তাড়াহুড়োর কি আছে।মামলার ফাইল না আসা পর্যন্ত তিনি কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন না।উপদেষ্টা কমিটির আইনজীবীরা অন্তর্বর্তীকালীন রক্ষা কাবচে আবেদন জানালে তাও খারিজ করে দেন প্রধান বিচারপতি র ডিভিশন বেঞ্চে।
সাড়া দিন এক এজলাস থেকে অন্য এজলাসে ছুটে যখন বেরোলো না কোন সুরাহা পথ অবশেষে সিবিআইয়ের দফতরে হাজিরা দিতে বাধ্য হলেন উপদেষ্টা কমিটির ৪ সদস্য।